ঈদ বাজারে পকেটমার ধরতে সতর্ক নারী পুলিশ, স্বস্তিতে নারী ক্রেতারা

আমাদের নতুন সময় : 02/06/2019

ইসমাঈল ইমু : রাজধানীর শপিং মল ও বিভিন্ন বিপনী বিতানে ঈদের বাজারে মানুষের ভিড়ে পকেটমাররা সক্রিয় থাকে। তবে এবার এসব পকেটমার ও ব্যাগ কাটা পার্টি ধরতে নারী পুলিশ সদস্যরা সতর্কাবস্থায় থাকায় এদের তৎপরতা দেখা যাচ্ছে না। পাশাপাশি মার্কেটগুলো নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন নারী ক্রেতারা।

গতকাল শনিবার রাজধানীর বিভিন্ন শপিং মল ঘুরে দেখা গেছে, ফার্মগেটস্থ ফার্মভিউ সুপার মার্কেটে মাইকিং চলছে। ক্রেতাদের সতর্ক করে বলা হচ্ছে, ইচ্ছেমত শপিং করা যাবে মার্কেটে। পকেটমার, ব্যাগ কাটা পার্টি ও অপরাধীদের দৌরাত্ম ঠেকাতে নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। পাশাপাশি দোকানীদের ক্রেতাদের সঙ্গে সদাচারণ করার অনুরোধ জানানো হচ্ছে। গতকাল ফার্মভিউ ও সেজান পয়েন্ট মার্কেটে ছিল উপচে পড়া ভিড়।

গত বছর নিউমার্কেটস্থ গাউছিয়া মার্কেটে এক নারী ক্রেতার সঙ্গে অসৌজন্যমুলক আচরণ করেছিল দোকানীরা। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তোলপাড় হয়। ফলে নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। এবার চিত্র পাল্টেছে। রাজধানীর সব মার্কেট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আগেভাগেই পুলিশ কর্মকর্তারা এ নিয়ে বৈঠক করেছেন। মার্কেটের নিরাপত্তার পাশাপাশি ক্রেতাদের বিষয়েও সতর্ক করা হয়েছে মার্কেট কর্তৃপক্ষকে। ব্যবসায়ীরা পুলিশকে এসব বিষয়ে সহযোগিতার আশ্বাসও দেন বৈঠকে।

রমজানের শুরু থেকে গতকাল পর্যন্ত রাজধানীর কোনো মার্কেটে ক্রেতাদের সঙ্গে দোকানীদের অসৌজন্যমুলক আচরণের খবর পাওয়া যায়নি। তাছাড়া, মার্কেট থেকে বেরিয়ে ছিনতাইকারি বা কোনো অপরাধী চক্রের কবলে পড়ারও খবর নেই।

বসুন্ধরা সিটি, নিউমার্কেট, ইস্টার্ন প্লাজা, মৌচাক মার্কেট, কর্ণফুলি গার্ডেন সিটি, ইস্টার্ন প্লাস, যমুনা ভিউচার পার্ক, গুলশান বনানীল কয়েকটি বড় শপিং মলসহ রাজধানীর প্রায় সব মার্কেটে আসা ক্রেতারা এবার স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। তারা জানান, ভিড় একটু বেশি হলেও পকেটমার বা ছিনতাইকারির কবলে পড়ার কোন খবর তাদের কাছে নেই। রাস্তার মোড়ে মোড়ে পুলিশের নিরাপত্তা তল্লশিও রয়েছে। শপিং মলের আশপাশে পোশাকের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও দায়িত্ব পালন করছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বলছেন, এবারের ঈদে শপিং মল ও বিভিন্ন বিপনী বিতানের নিরাপত্তার বিষয়ে আগেভাগেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। বিশেষ করে নারী ক্রেতাদের নিরাপত্তায় নারী পুলিশ সদস্যরা সতর্কাবস্থায় রয়েছেন। তাছাড়া, যানজট নিরসনে ট্রাফিক পুলিশ সার্বক্ষণিক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে পুলিশের চেকপোষ্ট রয়েছে। সন্দেহভাজন পথচারী, মোটর বাইক চালক ও আরোহীদের তল্লাশি করা হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত ঈদের বাজার নিয়ে কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর নেই বলে জানিয়েছেন তারা।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]