কলকাতার সঙ্গীত শিল্পী ও অভিনেত্রী রুমা গুহঠাকুরতা মারা গেছেন

আমাদের নতুন সময় : 04/06/2019

দেবদুলাল মুন্না: রুমা গুহঠাকুরতা ভারতের পশ্টিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতায় গতকাল সোমবার ভোরে ঘুমের মধ্যে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তিনি বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। এই শিল্পীর জন্ম কলকাতায় ১৯৩৪ সালে। তিনি ছিলেন প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী কিশোর কুমারের প্রথম স্ত্রী। তার ছেলে সঙ্গীত শিল্পী অমিত কুমার। রুমা গুহ ঠাকুরতা মুম্বাইয়ে অমিত কুমারের বাসায় থাকতেন। গত মাসে তিনি দক্ষিণ কলকাতার ৩৮ বালিগঞ্জ প্লেসে নিজ বাসভবনে ফিরে এসেছিলেন। গতকাল বিকেলে মুম্বাই থেকে ছেলে অমিত কুমার ও মেয়ে শ্রমণা চক্রবর্তী কলকাতায় ফিরে আসার পর রুমা গুহঠাকুরতার শেষকৃত্য অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। ১৯৫৮ সালে গানের দল ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যার গঠন করেছিলেন রুমা গুহঠাকুরতা।

এই ব্যা- গ্রুপ ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। তিনি অভিনেত্রী হিসেবেও সফল ছিলেন টালিউডে। তিনি সত্যজিৎ রায়ের ‘অভিযান’ (১৯৬২) ও ‘গণশত্রু’ (১৯৮৮) ছবিতে অভিনয় করেন। তিনি তপন সিনহা, তরুণ মজুমদারের ছবিতেও অভিনয় করেছেন। তিনি ‘বালিকা বধূ’, ‘অ্যান্টনি ফিরিঙ্গি’, ‘অমৃত কুম্ভের সন্ধানে’, ‘দাদার কীর্তি’, ‘৩৬ চৌরঙ্গী লেন’, ‘হংসমিথুন’, ‘তিন কন্যা’ ও ‘পলাতক’ ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসিত হন। কিশোর কুমারের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয় ১৯৫১ সালে। ১৯৫৮ সালে কিশোর কুমারের সঙ্গে তাঁর বিবাহবিচ্ছেদ হয়। রুমা-কিশোর কুমার দম্পতির একমাত্র সন্তান অমিত কুমার। কিশোর কুমারের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর রুমা গুহঠাকুরতা ১৯৬০ সালে বিয়ে করেন অরূপ গুহ ঠাকুরতাকে। তাঁদের ঘরে জন্ম সংগীতশিল্পী শ্রমণা চক্রবর্তী। তার মৃত্যুতে কলকাতার সংস্কৃতিঅঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]