মতিউর রহমান এবং মঈদুল হাসান মিলে ‘১৯৭১ : ভেতরে বাইরে’ বইটি তৈরি করেন, বললেন ক্যাপ্টেন আলমগীর সাত্তার

আমাদের নতুন সময় : 04/06/2019

জুয়েল খান : বঙ্গবন্ধুকে ছোট করার জন্যই প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান এবং মঈদুল হাসান মিলে বিতর্কিত ‘১৯৭১ : ভেতরে বাইরে’ বইটি তৈরি করেন। এখানে এ কে খন্দকারকে ব্যবহার করা হয়েছে। এ কে খন্দকার এই বইটি লেখেননি এবং তার কোনো লিখিত পা-ুলিপি প্রথমা প্রকাশনীর কাছে নেই বলে মনে করেন ক্যাপ্টেন (অব.) আলমগীর সাত্তার। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে যে বিতর্কিত বই ‘১৯৭১ : ভেতবে বাইরে’ লেখা হয়েছে- তা এ কে খন্দকারের লেখা বই নয়। এটা মূলত তৈরি করা বই। বিভিন্ন জায়গা থেকে কিছু লাইন তুলে নিয়ে বই তৈরি করা হয়। তারপরে সেই বই এ কে খন্দকারকে দেখানো হয়। এ কে খন্দকার তখন অ্যালঝাইমারে ভুগছিলেন, কোনো কিছু মনে রাখতে পারতেন না। কোথাও তিনি কোনো লিখিত স্ক্রিপ্টও দেননি। মৌখিক কথার উপরে বইটি তৈরি করে মুক্তিযুদ্ধ এবং বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণকে বিতর্কিত করার একটা অপচেষ্টা করা হয়েছে। এই কাজটি করেছে মূলত প্রথমা প্রকাশনী এবং মতিউর রহমান আর সঙ্গে ছিলেন মঈদুল হাসান।

তিনি আরো বলেন, এ কে খন্দকারকে আমি খুব কাছ থেকে চিনি। একসঙ্গে মুক্তিযুদ্ধ করেছি এবং বাংলাদেশ বিমানের প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে একসঙ্গে ছিলাম। এ কে খন্দকার ভালো বাংলা লিখতে পারেন না, তবে বাংলা পড়তে পারেন এবং তিনি বাংলা অনেক বই পড়েন। ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করার পরে ১৬ আগস্ট এ কে খন্দকার চাকরি থেকে রিজাইন দেন, কিন্তু আর কোনো অফিসার রেজিগনেশন সাবমিট করেননি। তিনি বঙ্গবন্ধুকে খুব ভালোবাসতেন। সুতরাং তার বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে এমন লেখার প্রশ্নই ওঠে না।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]