অনুমোদনহীন ওষুধের দোকানবাড়ছেই, নষ্ট হচ্ছে গুণগত মান

আমাদের নতুন সময় : 08/06/2019

ইসমাঈল ইমু : রাজধানীসহ সারাদেশে বাড়ছে ওষুধের দোকান। ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়াই চলছে এসব। এগুলোর বেশিরভাগেই নেই ফার্মাসিস্ট। এতে সঠিকভাবে ওষুধ সংরক্ষণ না করতে পারায় নষ্ট হচ্ছে গুণগত মান। আর লোকবলের অভাবে ব্যবস্থা নিতে পারছে না ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর। জানা গেছে, দেশে অনুমোদিত ফার্মেসি এক লাখ ৩০ হাজার। আর অনুমোদন নেই, এমন ফার্মেসির সঠিক হিসেব নেই কোনো কর্তৃপক্ষের কাছে। শহর, বন্দও, গ্রাম প্রতি এলাকাতেই মুদি দোকানের মতোই যত্রতত্র গড়ে উঠেছে ওষুধের দোকান। অনেক দোকানদার আবার দিচ্ছেন রোগের চিকিৎসাও। এভাবে শুধু বিক্রি বাড়াতে অনেক দোকানীই জড়িয়ে পড়ছেন অনিয়মে। ওষুধের

দোকান কমপক্ষে সি ক্যাটাগরি অর্থ্যাৎ দোকান পরিচালনায় বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত লোকবল থাকার কথা থাকলেও মানা হচ্ছে না তা। এসব অনিয়ম ঠেকাতে সারা দেশেই মডেল ফার্মেসির সংখ্যা বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিকস ওনার্স এসোসিয়েশনের মহাসচিব ডা. মইনুল আহসান বলেন, অল শুড বি আইডিয়াল এন্ড মডেল ফার্মেসি। একটা মেডিসিন যেভাবে রাখা উচিত, টেমপারেচার মেইনটেইন সেটাতে না থাকলে তো ফার্মেসি হলো না। সম্পাদনা : আবদুল অদুদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]