• প্রচ্ছদ » » আমেরিকা এবং ইরানের মধ্যকার উত্তেজনা : জাপানি প্রধানমন্ত্রীর দূতিয়ালি?


আমেরিকা এবং ইরানের মধ্যকার উত্তেজনা : জাপানি প্রধানমন্ত্রীর দূতিয়ালি?

আমাদের নতুন সময় : 10/06/2019

মাহফুজুর রহমান

১. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যকার বিদ্যমান উত্তেজনা কমিয়ে আনার লক্ষ্যে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজে আবে খুব শীঘ্রই তেহরান সফর করবেন। আর এটাই কোনো জাপানি প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘ ৪১ বছর পর ইরান সফর। ২. কিন্তু প্রশ্ন আসে, কে পাঠাইতেছে জাপানি প্রধানমন্ত্রীকে এই দূতিয়ালিতে? নিশ্চয় মার্কিন প্রশাসন? ট্রাম্প তো ইরানকে ভ্যানিশ করতেই অত্র এলাকায় যুদ্ধাস্ত্র মজুদ করেছেন। ঠেলার নাম বাবাজি! আধুনিক অস্ত্র থাকলেই হবে না, সাহস থাকতে হবে। ৩. আধুনিক অস্ত্র দিয়েই যদি সব হতো তাহলে ভিয়েতনামের যুদ্ধে পরাজিত হওয়া লাগতো না, আফগানিস্তানেও তালেবানদের সঙ্গে একটি চুক্তির জন্য মরিয়া হওয়া লাগতো না। সিরিয়া-ইরাকে আমেরিকা আধুনিক অস্ত্র দিয়ে পেরেছে? কি এমন অস্ত্র আছে ইয়ামেনের হুথি সেনাদের কাছে? সেই তাদের সঙ্গেই কি আধুনিক সমরাস্ত্রের অধিকারী সৌদি আরব লড়াইয়ে কুলাতে পারছে? ইরাকের অর্ধেক তো শিয়া মিলিশিয়াদের দখলে? গাজার হামাসের কাছে, লেবাননের হিজবুল্লাহর কাছে আধুনিক অস্ত্রের অধিকারী ইসরাইল কি পারছে? ৪. আর এদিকে শিনজে আবের তেহরান সফর পাকাপোক্ত করতে জাপানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইরানি নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করছেন। ৫. তবে তেহরান জাপানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেই দিয়েছে যে, এই উদ্দেশ্যে প্রয়োজনীয় প্রচেষ্টা গ্রহণের পাশাপাশি তেহরানকে ক্ষতিপূরণ দেয়া হলে এবং ইরানের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হলেই কেবল জাপানি প্রধানমন্ত্রীর এ সফর সফল হতে পারে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]