নিজেদের বিমানেই যাবো, মরলে মনে হবে দেশের মাটিতেই মরেছি, বললেন প্রধানমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 10/06/2019

সমীরণ রায় : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নিজের বিমানেই যাব। মরলে মনে হবে, দেশের মাটিতেই মরেছি। তিনি বলেন, কোনো কারণে বিমান না গেলে বা পাইলট পৌঁছাতে না পারলে চলে আসব। লক্ষ্যণীয় বিষয়, যখনই বিমানে উঠি, তখনই ঘটনা ঘটে বা নিউজ হয়। হয়তো পাসপোর্ট ভুলে যেতে পারে, ভুল হতে পারে। এখানে ইমিগ্রেশনে যারা ছিল, তাদের তো চেক করতে হবে।
এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আরেকটি কথা বলব, ইমিগ্রেশন এখন পাওয়ারফুল। এখন তো সবাই ভিআইপি, ভিভিআইপি, আরও ভি লাগবে। কিন্তু কাউকে ছাড়া হবে না। প্রতিটি পাসপোর্ট সিল মারা আছে কিনা চেক করা হবে। ভিভিআইপি লাগেজ ও সবকিছু চেক করা হবে।
তিনি আরও বলেন, এতদিন এত পরিশ্রম করে প্লেন কিনে এ অবস্থায় এসেছে। আরও নতুন ব্যবস্থা নেবো ঠিক তখনই একেকটি ঘটনা ঘটে। এটার কারণ আমার যেটা মনে হয়, আগে যারা ক্ষমতায় ছিল, তারা বিমানকে ইচ্ছেমত ব্যবহার করেছে। কিছুই তো ছিল না। জঘন্য অবস্থা ছিল। হোম মিনিস্টারের নামই ছিল ক্যাসিনো বাবর। সেগুলো চলত। সেগুলো ভালোভাবে চেক করছি, ব্যবস্থা নিচ্ছি, সবার পছন্দ হবে না জানি।
এখন এত চমৎকারভাবে চলছে, প্রবাসীরা নিজেদের দেশের ক্যারিয়ারে চলার জন্য পাগল। টিকিট নিয়ে ঝামেলা ছিল। সিট ছিল না। এখন আর এসব নিয়ে সমস্যা নেই। যারা এগুলো করত, তাদের কম পড়ছে। তাই যখনই যেতে চাই, তখনই সমস্যা হয়। আমাকে বলে, এটা হবে তো ওটা হবে। নিজের বিমানেই যাব। মরলে মনে হবে, দেশের মাটিতেই মরেছি। কোনো কারণে বিমান না গেলে বা পাইলট পৌঁছাতে না পারলে চলে আসব। এভাবে যে ঘটনাগুলো, আপনাদেরও দেখা উচিত কেন ঘটে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]