• প্রচ্ছদ » » ‘বাঘা সিদ্দিকী’র সাম্প্রদায়িক রাজনীতি এবং বেগম জিয়ার কারাবাস


‘বাঘা সিদ্দিকী’র সাম্প্রদায়িক রাজনীতি এবং বেগম জিয়ার কারাবাস

আমাদের নতুন সময় : 10/06/2019

হাসান বিন বাংলা

জনাব কাদের সিদ্দিকী… বীর মুক্তিযোদ্ধাই শুধু নন বরং বলা যায়, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে তিনি এক অপরিহার্য চরিত্র। বাঘা সিদ্দিকী ছাড়া মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস আধুরা আধুরা লাগে! সেই বাঘা সিদ্দিকী সেই কবে থেকে (!) সাম্প্রদায়িক রাজনীতির গডমাদারের জন্য কান্নাকাটি করেই যাচ্ছেন! অবশ্য ওটাতে দোষের কিছু নেই। হয় হয় এমনো হয়।
বিয়ে-শাদীর পর জন্মদাত্রী মায়ের চেয়ে বেশি সমাদর পায় বেগম সাহেবার আম্মাজান! আর শুয়োর তার দাঁতের ধার পরীক্ষা করার জন্য প্রথমেই দাঁত ফুটায়… এনিহাউ, মুক্তিযোদ্ধার সংজ্ঞা কি? অস্ত্র হাতে দেশমাতাকে মুক্ত করার নামে (!) যুদ্ধের ময়দানে থাকা যদি হয় ‘মুক্তিযোদ্ধা’ তবে নিঃসন্দেহে জনাব সিদ্দিকীর ‘প্রিয় ব্যক্তিত্ব জিয়াউর রহমান’ বটে! কথায় কথায় একজন মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী!
মুক্তিযোদ্ধা! ক্ষমতার স্বাদ পেয়েই যে কিনা মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশকে ৪৭-এর ভাবধারায় ফিরিয়ে নেয়ার কাজ শুরু করে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে, সেই তাকে মহান বানানোর সেকি তৎপরতা। এই সেই মুক্তিযোদ্ধা যে কিনা মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের ‘পর প্রথম আঘাত হেনেছিলো, সেই মুক্তিযোদ্ধার জন্য জনাব কাদের সিদ্দিকীর কান্না দেখে অবাক হতে হয়! বেগম জিয়ার শোকে সেই কাদের সিদ্দিকী একসময় বলেছেন… ‘সারাজীবন আওয়ামী লীগ করেছি, এখন করি না! যারা রাজনীতি করেন তারা জেলখানায় যাবেন এটা কোনো বড় কথা নয়। বড় কথা হলো বেগম জিয়াকে অন্যায়ভাবে জেলে রাখা হয়েছে… বেগম জিয়াকে যে মামলায় জেল দেয়া হয়েছে মামলাটি যদি মেনে নিতে পারতাম, ঘটনাটি সত্য বলে মনে হতো তাহলে কোনো জ্বলন থাকতো না।’ জনাব সিদ্দিকী আদালতের আদেশ মেনে নিতে পারছেন না! তিনি মনে করেন অন্যায়ভাবে মামলাটি দেয়া হয়েছে! যদি তাই হয় তবে তিনি আদালতের আদেশের বিরুদ্ধে রাজপথে নামছেন না কেন? বঙ্গবন্ধু বলে বলে বঙ্গবন্ধুকন্যার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া বুঝিবা কাদের সিদ্দিকীকেই মানায়! এভাবেই ইতিহাস অকৃতজ্ঞদের ওপর শোধ নেয়। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]