রাজধানীতে গ্যাস লাইন লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে দেয়াল ধ্বসে টুপি ব্যবসায়ীর মৃত্যু

আমাদের নতুন সময় : 11/06/2019

তিন সদস্যের কমিটি গঠন

সুজন কৈরী : রাজধানীর শনির আখড়ায় একটি ভবনে সুয়ারেজ লাইনের ভেতরে থাকা গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ হয়ে হয়ে দেয়াল ধ্বসে ফরিদ উদ্দিন (৫০) নামের এক টুপি ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন পথচারী ও স্থানীয় হক বেকারির ম্যানেজার কামাল হোসেন (৪৫), ভ্যান চালক সাইদুল ইসলাম (৩০) ও ফল ব্যবসায়ী জাকির হোসেন (৩৫)। আহতদের ঢাকা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সোমবার সকালে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। নিহত ফরিদ যাত্রাবাড়ীর রসুলবাগের ৪৩ নম্বর বাড়িতে পরিবার নিয়ে থাকতেন। গ্রামের বাড়ি ফেনীর ফুলগাজী এলাকায়।
ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, সুয়ারেজ মেন লাইনের মধ্যে তিতাস গ্যাসের লাইনও ছিলো। গ্যাস লাইনটি লিক হয়ে ভবনের তৃতীয় তলায় উঠে। সেখানে বিস্ফোরিত হলে ব্যাংকের দেয়াল ধ্বসে নিচে পড়ে। এ সময় নিচে থাকা ফরিদ উদ্দিন দেয়াল চাপায় গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
কদমতলী থানার ওসি জামাল উদ্দিন মীর বলেন, বাংকের ফ্লোরে গ্যাস ছড়ানো রয়েছে। তবে ব্যাংকের এসি ব্লাস্টে এ ঘটনা ঘটেছে না গ্যাসের লিকেজ থেকে হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তদন্ত চলছে। নিহতের লাশের সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়ানাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার লিমা খানম বলেন, সুয়ারেজের মেন লাইনের সঙ্গে থাকা গ্যাস লাইনটি লিক হয়ে নিচ থেকে ভবনের তৃতীয় তলায় উঠে। সেখানে এক্সপোর্ট ইম্পোর্ট ব্যাংক অব বাংলাদেশ লিমিটেডের (এক্সিম ব্যাংক) শাখা অফিস রয়েছে। অফিসের বাথরুমে গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে বিস্ফোরিত হয়ে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট হয়। এতে ভবনের দুই ও তৃতীয় তলার দেয়াল ধ্বসে নিচে পড়ে যায়। দেয়াল চাপায় একজন নিহত ও দুই জন আহত হয়েছেন।
ফায়ার সার্ভিসের ঢ্কাা বিভাগীয় উপপরিচালক দেবাশীষ বর্ধন বলেন, ঘটনার পরপরই ফায়ার সার্ভিসের টিম গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে বিস্ফোরণের সঙ্গে সঙ্গেই হতাহতের ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার সময় তারা সবাই নিচের সড়ক দিয়ে যাচ্ছিলেন। ভবনটির নিচ তলায় রেস্টুরেন্ট রয়েছে। বিস্ফোরণ হয়েছে তৃতীয় তলায় এক্সিম ব্যাংক থেকেই। ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে ৫ টনের এসি পড়ে থাকতে দেখা গেছে, আগুনের আলামত ও গ্যাসের আলামতও পাওয়া গেছে।
নির্দিষ্ট করে এখনো কোনো কারণ বলা সম্ভব নয়। ঘটনাটি অধিকতর তদন্তের জন্য তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]