সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে নতুন আতঙ্ক টিকটক

আমাদের নতুন সময় : 11/06/2019

শিমুল মাহমুদ : গান কিংবা রম্য সংলাপের সাথে নিজের ব্যাঙ্গাত্বক মুখোভঙ্গি আর ঠোট মিলায়ে মাত্র ১৫ সেকেন্ডের ভিডিও প্লাটফ্রম টিকটক। ১৫ সেকেন্ডের এই ব্যাঙ্গাত্মক রম্য সংলাপের প্রতিযোগীতায় মেতে আছে, শিক্ষার্থী, শিল্পী, তারকা, চিকিৎসকসহ বিভিন্ন  শ্রেণি পেশার মানুষ। অর্থহীন এপ্রতিযোগিতায় নিজেকে এগিয়ে রাখতে অনেকে নিচ্ছেন জীবনের ঝুকিও। অন্যের মনোযোগ আকর্ষণ করে নিজেকে আলোচনা আনার এমন প্রবনতাকে অসুস্থতা বলছেন মনোবিদরা।

টিকটক এক দিকে যেমন অশীল রুচিশীল কর্মকা-ে বিস্তার ঘটাচ্ছে অন্য দিকে তৈরী করছে মানসিক বৈকল্য তাই অ্যাপসটি বন্ধে প্রশাসনিক উদ্যোগ দরকার বলেও মনে করছেন প্রযুক্তি সংশ্লিষ্টরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মনোবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সঞ্চারী প্রতিভা বলেন, বিষন্নতা অথবা এনজাইটির রিলেটেড যে ডিসঅর্ডারের গুলো আছে মানসিক রোগের ডিকশনারিতে, সে ধরনের রোগ গুলো এ হীনমন্যতা থেকে তৈরী হতে পারে। তিনি বলেন, আমরা আসলে খুব ছোট বয়সেই বাচ্চাদের মোবাইল ফোন দিচ্ছি। আগেও কিন্তু ছেলে মেয়েরা বড় হয়েছে মোবাইল ছাড়া। এখন হচ্ছে বাসায় বাচ্চা কাঁদছে, তাকে একটা মোবাইল হাতে ধরিয়ে দিলো। এপ্রবনতা থেকে আমাদের বের হয়ে আসতে হবে।

বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরমের সভাপতি মোজাহেদুল ইসলাম বলেন, সামাজিক সচেতনতা জরুরি কিন্তু এ সচেতনতা কতক্ষণ। সে হয়তো বাহিরে গিয়ে পার্কে গিয়ে ভিডিওটা বানাচ্ছে। কিংবা অন্য জায়গায় গিয়ে ভিডিওটা বানাচ্ছে। তখন আসলে বাবা মায়ের কিছু করার থাকে না। ২০১৬ সালে চীনে টিকটকের জন্ম হলেও সেখানে এটির ব্যবহার নেই বললেই চলে। সম্পাদনা : ওমর ফারুক

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]