আদালত স্থানান্তর নিয়ে খালেদা জিয়ার রিট নিয়মিত বেঞ্চে পাঠানোর নির্দেশ

আমাদের নতুন সময় : 12/06/2019

নূর মোহাম্মদ : বিএনপি চেয়ারপাসন বেগম খালেদা জিয়ার বিচারে কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে আদালত স্থানান্তরের প্রজ্ঞাপন চ্যালেঞ্জ করে করা রিট হাইকোর্টের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
আদেশের পর ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, একটি গেজেট জমা দেয়ার কথা ছিলো (এই বিচারকের কেরানীগঞ্জের আদালতে বসার বিষয়ে), আমরা সেটি পাইনি। আর এ বেঞ্চের সময়ও নেই অবকাশে শুনানি করার। তাই অবকাশের পর নিয়মিত বেঞ্চে শুনানি করার আদেশ এসেছে। আমরা অবকাশের পর দ্রুত শুনানির উদ্যোগ নেব।
তিনি বলেন, কেরানীগঞ্জ মেট্রোপলিটন এরিয়ার বাইরে। আদালত স্থানান্তরের আদেশ ন্যায়সঙ্গত নয় এবং সংবিধান পরিপন্থী বলেই আমরা মনে করি। এটা শুধু বেগম খালেদা জিয়ার ব্যাপার না, আইনের ব্যাখ্যার বিষয় রয়েছে যে, মেট্রোপলিটন এরিয়ার মামলার বিচার এলাকার বাইরে হতে পারে কি না? আর এটা কোনো রাষ্ট্রদ্রোহী বা হাই -সিকিউরিটির মামলা নয় যে, এর জন্য আদালত স্থানান্তর করতে হবে।
এদিকে অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা বলেন, খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা দাবি করছেন এটি মেট্রোসেশন কেস। আসলে এটি স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের মামলা। বিভিন্ন উছিলায় তারা কোর্টে আসছেন সময় নিচ্ছেন। আমার মনে হয় এটি তারা সময়ক্ষেপণ করার জন্যই করছেন। এখনো রুল হয়নি, সুতরাং বিচারিক আদালতে মামলার কার্যক্রম চলতে বাধা নেই।
তিনি বলেন, আদালত স্থানান্তরের গেজেট হয়েছে ১২ মে। গেজেট হওয়ার পরও দুই দিন তারা সেখানে গিয়ে শুনানি করেছেন। এরপর এসে রিট করেছেন। মঙ্গলবার আদালতে দাড়িয়ে এ জে মোহাম্মদ আলী শুনানি করলেন। কিন্তু তিনি বলতে পারছিলেন না, তিনি কি রুল শুনানি করছেন, না সময় চাচ্ছেন। ওনি বললেন, আমার আরও বক্তব্য আছে। এ সময় কোর্ট বললেন, তাহলে আপনারা ভেকেশন বেঞ্চে আসলেন কেন? আপনাদের আসাই উচিত ছিল না। তখন ব্যারিস্টার মওদুদ বললেন, এটা আরেকটা কোর্টে যাক। এখানে বোঝা গেলো তাদের আইনাজীবীদের মধ্যে সমন্বয়হীনতা রয়েছে। সম্পাদনা : কাজী নুসরাত




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]