যানজট কমাতে ছোট গাড়ী ব্যবহারে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে, সেতুমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 13/06/2019

আসাদুজ্জামান সম্রাট : সড়কের যানজট কমিয়ে আনতে ব্যক্তিগত ছোট গাড়ী  ব্যবহারকে নিরুৎসাহিত করতে সচেষ্ট রয়েছে সরকার। এটা সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসতে ১০০টি নন-এসি স্কুলবাস, ২০০টি একতলা এসি বাস এবং ২০০টি একতলা এসি সিটি বাস সংগ্রহের পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। গতকাল বুধবার এম. আবদুল লতিফের লিখিত প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সংসদকে এ তথ্য জানান। মন্ত্রী বলেন, দেশে গণপরিবহনে শৃঙখলা প্রতিষ্ঠার নানামুখী পদক্ষেপের অংশ হিসেবে ভারত থেকে ৬০০ বাস কেনার জন্য দুটি ভারতীয় গাড়ী প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। গত ৬ জুন পর্যন্ত ২৬৬ বাস বিআরটিসি’র বহরে যুক্ত হয়েছে।

হাজী মোঃ সেলিমের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী যাত্রীবাহী বাসে যাত্রীদের হয়রানি হতে রক্ষা করার লক্ষ্যে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধে বিআরটিএ’র নির্বাহী ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেটগণ নিয়মিতভাবে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে আসছে। গত ৩১ মে পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের ৩৩৩০৫টি মামলার ৬৩ কোটি ২৬ লাখ ২ হাজার ৮২০ টাকা জরিমানা আদায়সহ ১৯৫টি গাড়ী ডাম্পিং স্টেশনে প্রেরণ এবং ৫৯৮ জন আসামীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদ- প্রদান করা হয়েছে।

বিএনপি থেকে নির্বাচিত এমপি মোঃ হারুনুর রশীদের লিখিত প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সারাদেশে প্রতিনিয়ত সড়ক দুর্ঘটনায়  মানুষ মারা যাওয়ার উল্লেখযোগ্য কারণ হচ্ছে ওভারলোডিং, ওভারটেকিং, যান্ত্রিক ত্রুটি, যাত্রীদের অসচেতনতা, চালকদের ট্রাফিক সাইন, ট্রাফিক আ¦নি ও লেন বিধি না মানার প্রবণতা, একনাগাড়ে ৫ঘন্টার বেশি গাড়ী চালনা ইত্যাদি। এসব কারণসমূহ সমাধানে ৮টি কারণ চিহ্নিত করে সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। ওই এমপির আরেক প্রশ্নে জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, গত ১০ বছরে অর্থাৎ চলতি বছরের এপ্রিল পর্যন্ত সড়ক দুর্ঘটনায় মোট ২৫ হাজার ৫২৬জন মারা গিয়াছে এবং এতে আহত হয়েছে ১৯ হাজার ৭৬৩জন।

মোঃ মুজিবুল হকের এক মৌখিক প্রশ্নে জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ১২১টি দুর্ঘটনা প্রবন স্থানে প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে এবং আরো ১০৮টি দুর্ঘটনা প্রবণ স্থান উন্নয়নের প্রকল্প প্রস্তাব অনুমোদনের জন্য প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।  বিগত ১০ বছরে ৩ লাখ ৭৬ হাজার ৪০৫ জন পেশাদার চালকদের ২দিনব্যাপী রিফ্রেশার প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

এ কে এম রহমতুল্লাহর মৌখিক প্রশ্নের  জবাবে কাদের বলেন, ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে তিনটি ধাপে নির্মিত হচ্ছে। এর মধ্যে প্রথম ধাপের নির্মান চলমান রয়েছে, এ ধাপের ৩৫ শতাংশ ভৌত কাজ সম্পাদিত হয়েছে।

এমপি আবদুস শহীদের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়কে চলাচলরত অনেক চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই একথাটি অস্বীকার করার কোন উপায় নেই। এক্ষেত্রে কিছুটা সমন্বয়হীনতা রয়েছে এবং লাইসেন্সবিহীন চালকদের আটকে আইন-শৃঙখলাবাহিনীর-ও গাফলতি বা দায়িত্ব পালনে অবহেলা আছে। সমন্বয়হীনতা কমিয়ে সচেতনতা বাড়াতে সচেষ্ট রয়েছে মন্ত্রণালয়।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]