• প্রচ্ছদ » টুকরো খবর » মসজিদ ফান্ডের ১৫/১৬ লাখ টাকা সবার সম্মতিতে ভবিষ্যৎ কলেজের জন্য জমি কিনতে দেয়ার সিদ্ধান্ত এবং ধর্মীয় কূপম-ুক তথাকথিত কিছু শিক্ষিত লোক


মসজিদ ফান্ডের ১৫/১৬ লাখ টাকা সবার সম্মতিতে ভবিষ্যৎ কলেজের জন্য জমি কিনতে দেয়ার সিদ্ধান্ত এবং ধর্মীয় কূপম-ুক তথাকথিত কিছু শিক্ষিত লোক

আমাদের নতুন সময় : 18/06/2019

কামাল পাশা চৌধুরী

নিজের গ্রামকে তো সবাই ভালোবাসে, আমিও বাসি। শুধু ভালোবাসাই নয়, আমি ভীষণরকম গর্বিত আমার গ্রাম নিয়ে, তার চেয়েও বেশি আমার গ্রামের মানুষদের নিয়ে। তাদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা নেই। বেশিরভাগই কৃষক, অনেকে হাওরে মাছ ধরে জীবিকা চালায়। তাদের ওপর নির্ভর করেই ‘ভাটিবাংলা হাইস্কুল’টি চালাচ্ছি ১২ বছর যাবৎ। বর্তমানে চারশর কাছাকাছি শিক্ষার্থী, যার ৬৫ শতাংশ মেয়ে। এ পর্যন্ত পাঁচটি ব্যাচ এসএসসি পাস করেছে। এবার কথায় কথায় বলেছিলাম, স্কুলটি এমপিওভুক্ত হলেই এখানে একটি কলেজ করবো। শুনে সবাই খুশি। তারা বললেন, কলেজ করলে স্কুলের সাথে করাই ভালো। এমনিতেই হাওর অঞ্চলে উঁচু জমি নেই। তখন জমি পাইবো কই? এখনই আশেপাশের জমি কিনে রাখা উচিত। কিন্তু জমি কেনার টাকা কই!
তারা সেদিনই মসজিদের মাইকে গ্রামবাসীদের ডেকে এই বিষয়ে পরামর্শ করে মসজিদ ফান্ডের ১৫/১৬ লাখ টাকা সবার সম্মতিতে ভবিষ্যৎ কলেজের জন্য জমি কিনতে দিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিলো। আমি অবাক হয়ে শুধু ভাবছি, ধর্মীয় কূপম-ুক তথাকথিত শিক্ষিত লোকগুলোর সাথে এদের চিন্তার কতটা ব্যবধান। হাওরের মানুষগুলোর মন হাওরের মতোই বিশাল। প্রবীণ কৃষক মুক্তিযোদ্ধা জালাল মিয়া আমকে বললো, মামু এই টাকা ঈদগাহ মাঠ করার জন্য রেখেছিলাম, সারা জীবন বর্ষায় কাদা-পানিতে দাঁড়িয়ে ঈদের জামাত পড়েছি, না হয় আরও পাঁচ বছর পড়বো। টাকা লাগলে আরও যোগার করবো, তুমি কলেজ বানাও। আমি অভিভূত, আমি কৃতজ্ঞ আমার গ্রামের মানুষ গুলোর কাছে। তাদের পায়ে আমার হাজার সালাম।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]