এটর্নি সার্ভিস গঠনে কাজ করছেসরকার, সংসদে আইনমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 19/06/2019

আসাদুজ্জামান সম্রাট : আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, সরকারি কৌশলীদের মামলা পরিচালনার সুবিধার্থে এটর্নি সার্ভিস গঠনের বিষয়টি সরকারের সক্রিয় বিবেচনায় আছে। এ বিষয়ে কার্যক্রম চলমান থাকলেও সুনিদিষ্ট সময়সীমা নির্ধারিত হয়নি। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে এ কে এম রহমতুল্লাহ্র টেবিলে উপস্থাপিত প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী এ তথ্য জানান। মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে চলাকালে সংঘটিত গণহত্যা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ ও যুদ্ধাপরাধ বিচারের জন্য সরকার ‘আন্তজার্তিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ ও ‘আন্তজার্তিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ নামে দুটি ট্রাইবুনাল গঠন করেছে। ২০১৫ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর এক প্রজ্ঞাপনে ট্রাইবুনাল-১ পুনঃগঠন করে বিচারাধীন কার্যক্রম চলমান রাখা হয়েছে।

বেনজীর আহমদের এক প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বলেন, চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত বিচারাধীন মোট মামলার সংখ্যা ৩৫ লাখ ৮২ হাজার ৩৪৩টি। আইন ও বিচার বিভাগ সারাদেশের বিচার ব্যবস্থায় দীর্ঘসূত্রিতা কমিয়ে বিচার কাজ ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে বিচারকের সংখ্যা বৃদ্ধি ও এজলাস সংকট নিরসনে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। বিচার কাজে গতিশীলতা বাড়ানোর লক্ষ্যে সরকারের বিশেষ উদ্যোগে বিভিন্ন পর্যায়ের বিচারকের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে।

মন্ত্রী জানান, ২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত অধস্তন আদালতে মোট ৫৭১জন সহকারি জজ নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ৯৯ জন সহকারী জজ নিয়োগের কার্যক্রম প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। আরো ১০০ জন সহকারী জন নিয়োগের জন্য জুডিসিয়াল সার্ভিস কমিশন বরাবর চাহিদা পত্রও প্রেরণ করা হয়েছে।

শফিকুল ইসলাম শিমুলের প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বলেন, সারাদেশে নিকাহ রেজিস্ট্রার কাজিদের জাতীয়করণ করার কোন পরিকল্পনা বর্তমান সরকারের নেই।

নুরুন্নবী চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, নিবন্ধন অধিদপ্তরে কর্মরত সাব-রেজিস্ট্রারদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া যায়। তবে, বিগত ১০বছরে এ অপরাধে কাউকে চাকরিচ্যুত করা হয়নি। কারণ অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় চাকরি বহাল রাখা হয়েছে।

মোহাম্মদ শহিদ ইসলামের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, প্রাণঘাতি মাদকের অপব্যবহার রোধ ও মাদক প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন, ২০১৮ এর আওতায় মাদক বিরোধী আদালত, ট্রাইব্যুনাল প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে।

বিএনপির এমপি মোঃ হারুনুর রশীদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, বার কাউন্সিলে সরকার কর্তৃক বরাদ্দকৃত অর্থের পরিমাণ ১১৭ কোটি ৬৬লাখ ৩২ হাজার টাকা। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ করছে কুশলী নির্মাতা লিমিটেড।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]