• প্রচ্ছদ » » সাংবাদিকতা, রাজনীতি এবং অর্থনীতি একসূত্রে গেঁথে দিয়েছেন ‘পতিতযশা’ সাংবাদিকরা


সাংবাদিকতা, রাজনীতি এবং অর্থনীতি একসূত্রে গেঁথে দিয়েছেন ‘পতিতযশা’ সাংবাদিকরা

আমাদের নতুন সময় : 19/06/2019

লুৎফর রহমান হিমেল

বঙ্গবন্ধু প্রয়াত। সেই বঙ্গবন্ধুকে উঠতে বসতে গালাগাল করতেন এক সাংবাদিক। চোখের সামনেই দেখেছি। শুধু তাই নয়, শুনি, তিনি এখন কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতাও। অনেকে বলেন, একটুর জন্য গত ভোটে তিনি নাকি এমপি মনোনয়ন পাননি। খুব সম্ভবত আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কাছে তার সম্পর্কিত গোয়েন্দা তথ্যগুলো ছিলো। এরকম আরেক পতিতযশা সাংবাদিক, যিনি এখন সম্পাদক, তাকে দেখেছি হেফাজতকে সমর্থন করতে। এখনকার সমঝোতার হেফাজত নয়, যখন এই সরকার পতনের আন্দোলনে ছিলো হেফাজত তখনকার সময়ে। সেই সম্পাদক এখন ‘আওয়ামী লীগার মোর দ্যান বঙ্গবন্ধু’। আসলে তিনি আওয়ামী লীগ করেন না। কারো আওয়ামী লীগ করা না করা বিষয় নয়, বিষয় হলো, তিনি যেটা মনে ধারণ করেন না, সেটা মুখে বলে সুবিধা নেওয়াটাই অনৈতিক। এসব অসংখ্য কাহিনী চাক্ষুস করা আছে। যার ফলে কোনো জুনিয়র সংবাদকর্মী যখন প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনে বলেন যে, তিনি এক সময় ছাত্রলীগ করতেন, আমি আশ্চর্য হই না। সাংবাদিকতা, রাজনীতি এবং অর্থনীতি এগুলো এখন একসূত্রে গেঁথে দিয়েছেন ওই পতিতযশা বড় বড় সাংবাদিকরা। মালিকপক্ষ নয়, এভাবে এরাই আসলে শেষ করে দিয়েছেন দেশের সাংবাদিকতার ক্ষেত্রটা। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]