বামপন্থীবিরোধী মৌলবাদিতা!

আমাদের নতুন সময় : 21/06/2019

আরিফুজ্জামান তুহিন

বাংলাদেশে কিছু মানুষ বøগ, ফেসবুকে লেখেন। তারা মিডিয়াতে, এনজিওতে জব করেন। আধুনিক সেক্যুলার সমাজের সব সুবিধা নেন কিন্তু সেক্যুরাজিমকে ঘৃণা করেন, ধর্মীয় মৌলবাদী রাষ্ট্র কায়েমের পক্ষে কথা বলেন। নিজেকে তারা মিশেল ফুকোর মতো ভাবেন, ঠিক ইরান বিপ্লবের আগে ও কিছু পররে ফুকোর যেমন ইরান নিয়ে ইলিউশন হয়েছিলো।
মূলত তারা ব্যর্থ উপন্যাসিক, ব্যর্ত পদ্য ও গদ্যকার। এদের কাছ থেকে বামপন্থা, কমিউনিজমের সমালোচনা শুনতে অশ্লীল ফিলিং তৈরি হয়। কারণ তারা সেটা করার মতো ন্যূনতম যোগ্যতাও রাখেন না। এর চেয়ে সরাসরি সিআইএর মাল জজ অরঅয়েলের এনিমাল ফার্ম, নাইন্টি এইটিফোর কিংবা ফাস্ট সার্কেল অনেক আনন্দদায়ক পাঠ। এসব নিকৃষ্ট ভাঁড়গুলো সম্পর্কে ১৯৭১ সালের ইপিসিপিএমলের খুলনা অঞ্চলের বাহিনী কমান্ডার নূর মুহাম্মদের একটা বক্তব্য আমার বারবার কানে বাজে। তিনি বলেছিলেন, থাবড়ায় দাঁত ফেলায় দেয়া দরকার। তবে তাদের থাবড়ানো যাবে না। কারণ তাতে ইরাক, সিরিয়া, লিবিয়া, আফগাস্তান কাশ্মীরে আক্রমণকারী বহুদলীয় লিবারেল গণতন্ত্রের আত্মা কষ্ট পাবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]