মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করলো ইরান

আমাদের নতুন সময় : 21/06/2019

The MQ-4C Triton unmanned aircraft system prepares to land at Naval Air Station Patuxent River, Md., after completing an approximately 11-hour flight from Northrop Grumman’s California facility. (U.S. Navy photo by Kelly Schindler/Released)

রাশিদ রিয়াজ : ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী এক বিবৃতিতে দাবি করেছে, আকাশসীমা লংঘন করায় তাদের বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যাটারি হরমুজ প্রনালীতে ওই ড্রোন ভূপাতিত করে। তবে যুক্তরাষ্ট্র দাবি করছে, ড্রোনটি আন্তর্জাতিক আকাশসীমাতেই ছিল। ওয়াশিংটন এ ঘটনাকে উস্কানিমূলক বলে নিন্দা করেছে। সিএনএন/  প্রেসটিভি/টাইমস অব ইসরায়েল

ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব আলী শামখানি রাশিয়ায় আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সম্মেলনের অবকাশে বলেছেন, আকাশ সীমা হচ্ছে ইরানের রেড লাইন। কেউ তা অতিক্রম করলে এর কঠিন জবাব দেয়া হবে। ইরান এর আগেও একই কাজ করেছে। বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল হোসেন সালামি জানান, ড্রোন ভূপাতিত করে ইরান যুক্তরাষ্ট্রকে সুস্পষ্ট বার্তা দিয়েছে। সেটি হলো: ইরান যুদ্ধ চায় না, কিন্তু দরকার হলে যুদ্ধের জন্য তারা প্রস্তুত।

বিবিসির সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন, মার্কিন এই ড্রোনটি আকাশের অনেক ওপর থেকে গোয়েন্দা নজরদারির কাজে ব্যবহার করা হচ্ছিল।

ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়, দেশে নির্মিত ‘দ্য থার্ড অব খোরদাদ’ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ৭৫ কিলোমিটারের মধ্যে ৮১ হাজার ফুট উঁচু পর্যন্ত আকাশ সীমায় জঙ্গি কিংবা বোমারু বিমান, ড্রোন বা ক্ষেপণাস্ত্র ঘায়েল করতে পারে। মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করতে এ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে। বছর দুয়েক আগে ইরানের আকাশে একটি মার্কিন ড্রোনকে পাল্টা কমান্ড দিয়ে নামিয়ে আনে ইরান। এরপর ইসরায়েলের প্রযুক্তি সহায়তায় যুক্তরাষ্ট্র তার স্টিলথ ড্রোন নির্মাণে বড় ধরনের পরিবর্তন আনে। তবে এবার এধরনের ড্রোন ইরানে ভূপাতিত করার পর ধারণা করা হচ্ছে তেহরান ড্রোন প্রতিরোধ ব্যবস্থায় অনেক দূর এগিয়ে গেছে।

গত সপ্তাহে আমিরাতের ফুয়াইজা বন্দর ও ওমান ঊপকূলে সৌদি ও জাপানের ট্যাংকারে হামলার ঘটনা ঘটে। এ হামলার জন্যে ইরানকে যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করে ভিডিও ফুটেজ ছাড়লেও জাপানের তরফ থেকে তা প্রত্যাখ্যান করে বলা হয় আকাশ থেকে ট্যাংকারে হামলা করা হয়েছে।

মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সামরিক উপস্থিতি জোরদারের কারণে এ অঞ্চলে যখন তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে তখন ইরানের আকাশসীমায় মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করার খবর এল। সোমবার পেন্টাগন মধ্যপ্রাচ্যে আরো ১ হাজার সেনা পাঠানোর ঘোষণা দেয়। ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র সেখানে একটি বিমানবাহী জাহাজের নেতৃত্বে একটি স্ট্রাইক গ্রুপ ও বি-৫২ বোমারু বিমান পাঠিয়েছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]