রুমিন-হারুনে বিএনপিতে স্বস্তি

আমাদের নতুন সময় : 22/06/2019

শিমুল মাহমুদ : নীতি নির্ধারকদের আপত্তি থাকা সত্ত্বেও সংসদে যোগ দেয়া দলীয় এমপিদের ভূমিকা ও গঠনমূলক বক্তব্যে স্বস্তি ফিরছে বিএনপিতে। বিএনপি নেতারা বলেছেন, সংসদে তাদের এমপিরা কথা বলতে গিয়ে যে ধরনের প্রতিবন্ধকতার মুখ পড়ছেন, সে বিষয়টি তারা সবার সামনে উন্মোচন করতে চেয়েছেন সংসদে যোগ দেবার মাধ্যমে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, সংসদে দলের প্রতিনিধিদের ভূমিকায় আড়ষ্টতা কাটিয়ে উঠতে শুরু করেছে দলের হাইকমান্ড ও তৃণমূল। তাদের দৃষ্টি এখন সংসদের দিকে। সংসদের ভেতরে ও বাইরে সরকারের বিরুদ্ধে কার্যকর আন্দোলন গড়ে তুলতে পারলেই দ্রুতই মুক্তি পাবেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। চলছে নিজেদের শক্তি অর্জনের জন্য নানামুখী পদক্ষেপ।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে নির্বাচিত বিএনপি সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদসহ পাঁচ এমপি শপথ নেয়ার পর সংসদ কিছুটা প্রাণবন্ত হলেও। সর্বশেষ বিএনপি মনোনীত ও সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা যোগ দেয়ার পর জাতীয় সংসদের অধিবেশন প্রকৃত অর্থেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

রুমিন ফারাহানা তার বক্তব্যের শুরুতেই বলেন, এই সংসদ জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়, তখন সরকার দলীয় সংসদ সদস্যরা ব্যাপক শোরগোল শুরু করেন। এক পর্যায়ে ডেপুটি স্পিকার তার বক্তব্য থামিয়ে বলেন, আপনি বাজেটের বাইরে এমন কোনো কথা বলবেন না যাতে সংসদ উত্তপ্ত হয়।

পর্যবেক্ষকরা মনে করেন, সদস্য সংখ্যা যাই হোক না কেন, বিএনপি সংসদে যোগ দেবার ফলে ভিন্ন এক সংসদ দেখা যাচ্ছে যেটি ২০১৪ সাল থেকে অনুপস্থিত ছিলো।

স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ^র চন্দ্র রায় বলেন, পার্লামেন্টে ছোট বড় যে দলেই সংসদ থাকুক না কেনো তারা যার যার অবস্থান থেকে জনগণের এবং গণতন্ত্রের জন্য কথা বলবে এটাই জনগণের আকাক্সক্ষা।

সংসদে স্পিকার নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করছে না মন্তব্য করে স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু চৌধুরী বলেন, সংসদে স্পিকারের কাজ হলো নিরপেক্ষ থাকা কিন্তু দৃশ্যত তিনি নিজেও সরকারি দলের ভূমিকা পালন করছেন। কথা বলতে দিচ্ছেন না, মাইক বন্ধ করে দিচ্ছেন, এক্সপাঞ্জ করছেন, মন্তব্য করছেন। অনির্বাচিত সংসদ, এরা তো সংসদের রীতিনীতিও বুঝে না। সবাই চেঁচামেচি করছে, মারমুখি অবস্থা তৈরি করছে।

তিনি বলেন, এ সংসদ নিয়ে বির্তক আছে, এ পার্লামেন্ট জনগণ নির্বাচিত করে নাই। তারপরও যদি  পার্লামেন্টে জনগণের জন্য আলোচনা হয়। তারা অবশ্যই প্রশংসিত হবে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, তারা যতোটুকু পারছে, চেষ্টা করছে। যেখানে সভা-সমাবেশ করা যায় না, কথা বলা যায় না এমন পরিস্থিতিতে যেখানে যতোটুকু কথা বলার স্পেস পাওয়া যায় তার সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। অবৈধ সংসদে তারা কথা বলছে, এটা দলের নির্দেশনা। তাদের ভূমিকাও প্রশংসনীয়। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]