বাংলাদেশীদের ভারতে চিকিৎসামুখিতার প্রধান কারণ দালালের দৌরাত্ম

আমাদের নতুন সময় : 24/06/2019

ইয়াসমিন : ভারতের আর্নস্ট অ্যান্ড ইয়াং (ইওয়াই) এর তথ্যমতে দেশটিতে চিকিৎসা নিতে যাওয়া ৪৫ ভাগ রোগী বাংলাদেশী। দেশটিতে প্রতিবছর বাংলাদেশী রোগী যাবার হার বাড়ছে। এরপেছনে দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার দূর্বলতার চেয়ে দালালদের দৌরাত্মকেই বেশি দায়ি করছেন চিকিৎসকেরা। ইওয়াই এর তথ্য অনুযায়ী, ২০১৭ সালে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া রোগীদের ৬২ শতাংশই অসংক্রামক রোগের চিকিৎসার জন্য ভারতে গেছেন। সংক্রামক, মাতৃত্ব, নবজাতক ও পুষ্টির অভাবজনিত বিভিন্ন রোগের (সিএমএনএনডি) চিকিৎসা নিতে ভারতে গিয়েছেন ২৯ শতাংশ রোগী। কান্সার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিন বলেন, ভারতের সাথে আমাদের দেশের চিকিৎসা শিক্ষার মানে বিশেষ তফাৎ আছে বলে আমি মনে করি না।

তবে পেশাদারিত্বে আমাদের আরো উন্নতি করার সুযোগ আছে। রোগীর প্রতি যথেষ্ট সময় ও মনোযোগ না দেয়ার একটা অভিযোগ আছে আমাদের বিরুদ্ধে। এটা অমূলক নয়। আমরা রোগীর আস্থা সেভাবে অর্জন করতে পারি নাই। চিকিৎসক মারুফুর রহমান অপু বলেন, দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা ও চিকিৎসকদের প্রতি আস্থা ও স্বস্তির অভাবের কারণে এটি ঘটছে। কিছু ক্ষেত্রে সরাসরি সেবার মান দায়ী। এমন নয় যে এদেশে চিকিৎসা সেবার মান ভালো নয়, তবে রেফারেল সিস্টেমের অভাবে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের অতিরিক্ত রোগীর চাপ, অসাধু চিকিৎসক, চিকিৎসাসেবার লাগামহীন বাণিজ্যিকিকরণ ইত্যাদি কারণে রোগীরা স্বস্তিদায়ক চিকিৎসা পান না। এছাড়াও সামাজিক মাধ্যম ও গণমাধ্যমে চিকিৎসাসেবা সম্পর্কে শুধুমাত্র নেতিবাচক (মিথ্যা বা ভিত্তিহীন খবরও) খবরের ফলাও প্রচার এই আস্থাহীনতায় প্রভাব ফেলছে। সম্পাদনা : শাহানুজ্জামান টিটু, ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]