• প্রচ্ছদ » » দক্ষিণ ভারতে নায়িকাদের বৃষ্টির পানিতে ভেজা নিষিদ্ধ!


দক্ষিণ ভারতে নায়িকাদের বৃষ্টির পানিতে ভেজা নিষিদ্ধ!

আমাদের নতুন সময় : 04/07/2019

বিনোদন ডেস্ক : দক্ষিণ ভারতের চেন্নাইতে তীব্র পানি সংকট। এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সামনের দেড় বছরের মধ্যে চেন্নাই, দিল্লি, বেঙ্গালুরু ও হায়দরাবাদসহ ২১টি শহরে পানির তীব্র সংকট তৈরি হবে। ১০ বছরের মধ্যে ভারতের ৪০ শতাংশ মানুষ পান করার মতো পানি পাবে না। ইতোমধ্যে তামিলনাড়ুতে পানির জন্য শুরু হয়ে গেছে হাহাকার। এসব কারণেই সিনেমায় বৃষ্টির দৃশ্য একেবারেই রাখতে চাইছেন না পরিচালকেরা। তামিল পরিচালক জি ধনঞ্জয় জানান, বৃষ্টির দৃশ্য আপাতত বাদ দেয়া হচ্ছে। পানির অপচয় রোধে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। টাইমস অব ইন্ডিয়া সংকটের কারণে তামিল ছবিতে পানির ব্যবহার কমে গেলেও যেটুকু থাকবে, সেটুকুও কম্পিউটারে তৈরি পানি বা বৃষ্টি। সংকটে পড়ে সিনেমায় বন্যা বা সুনামির দৃশ্য দেখাতে ৫০-১০০ ট্যাংক পানি চাইতে পারছেন না ছোট-বড় কোনো পরিচালকই। শিগগিরই শুটিং শুরু হবে বা চলছে, এ রকম ছবিগুলোতেও বৃষ্টির দৃশ্য রাখছেন না কেউই। এই সংকটের কথা মাথায় রেখে কাজ করা হচ্ছে ভারতীয় টেলিভিশনেও। ‘বিগ বস থ্রি’র সেটের সুইমিং পুল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। অপ্রয়োজনে পানি ব্যবহার সেখানে করা বা দেখানো হচ্ছে না। অনেকে ধারণা করছেন সিনেমা শিল্প ছাড়াও এই পানি সংকটের প্রভাব আইটি, হোটেলসহ সর্বত্রই পড়বে। অজিতের ‘বিশ্বসম’ এবং রজনীকান্তের ‘কালা’ ছবির বৃষ্টির দৃশ্য ধারণ করা হয়েছিলো হায়দরাবাদ ও মুম্বাইতে। ২০১০ সালে করণ জোহর পরিচালিত শাহরুখ খানের ‘মাই নেম ইজ খান’ ছবিতে নিউইয়র্কে বন্যার দৃশ্য তৈরি করতে ২০০ ট্যাংক পানি ব্যবহার করা হয়। মুখেশ ভাটের ‘তুম মিলে’ ছবিতেও এই পরিমাণ পানি ব্যবহার করা হয় মুম্বাইয়ের প্লাবনের দৃশ্য দেখাতে। অনেকেই মনে করেন, নায়িকাদের ভেজালেই লোকে ছবি দেখতে যাবে। তবে পানির সংকটের কারণে বৃষ্টিতে ভেজা নায়িকার রোমান্টিক নাচ তামিল ছবিতে আপাতত বন্ধ। পানির সংকটের এলাকাগুলোর সঙ্গে একাত্মতা জানাতে শিগগিরই অন্য অঞ্চলগুলোতেও এই সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]