• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » বায়ু দূষণে পুরুষের স্পার্ম কাউন্ট অর্ধেকে নেমে এসেছে, রাজধানী ঢাকার মানুষও এর বাইরে নেই


বায়ু দূষণে পুরুষের স্পার্ম কাউন্ট অর্ধেকে নেমে এসেছে, রাজধানী ঢাকার মানুষও এর বাইরে নেই

আমাদের নতুন সময় : 04/07/2019

মতিনুজ্জামান মিটু : প্রায় দুইশোটি গবেষণা প্রতিবেদনের আলোকে গবেষকদের পর্যবেক্ষণের বরাতে পরিবেশ অধিদপ্তরের সাবেক পরিচালক মো. জাফর সিদ্দিক উদ্বেগজনক এ তথ্য জানান। গতকাল পরিবেশ অধিদপ্তরের নতুন ভবনের অডিটরিয়ামে এক আলোচনা সভায় তিনি বললেন, বায়ু দূষণের অভিঘাতে শুধু বন ও জীববৈচিত্র্যেরই ক্ষতি হচ্ছে না, এতে রাজধানীতে বসবাসকারী পুরুষের সন্তান উৎপাদনের ক্ষমতাও কমছে।
সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত বৈশ্বিক বায়ু পরিস্থিতি ২০১৭ শীর্ষক প্রতিবেদনের আলোকে সভায় আরো জানানো হয়। বায়ু দূষণের কারণে বিশ্বে প্রতি বছর ৭০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়। ২০১৫ সালে ভারত ও চীনে প্রায় ৪০ লাখ মানুষ বায়ু দূষণে মারা যায়। বিশ্বে যে কারণে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা যায় তার মধ্যে বায়ু দূষণ রয়েছে পঞ্চম স্থানে। দূষিত বায়ুর শহরগুলোর মধ্যে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাজধানী ঢাকা। প্রথম অবস্থানে আছে ভারতের দিল্লী।
সারাবিশ্বে পুরুষদের শরীরে যে হারে শুক্রাণুর সংখ্যা বা স্পার্ম রেট কমে যাচ্ছে তা বজায় থাকলে মানুষ বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে বলে হুঁশিয়ার করেছেন এক চিকিৎসক। প্রায় দুইশোটি গবেষণা প্রতিবেদনের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে গবেষকেরা দেখেছেন, ৪০ বছরেরও কম সময়ে প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে পুরুষদের স্পার্ম কাউন্ট। উত্তর আমেরিকা, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের পুরুষেদের ওপর করা হয়েছিলো এসব গবেষণা। মানব প্রজন্মের সাম্প্রতিক তথ্য নিয়ে অবশ্য কিছু গবেষক সন্দেহও প্রকাশ করেছেন।
যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক গবেষণা সংস্থা হেলথ ইফেক্টস ইনস্টিটিউট এবং ইনস্টিটিউট ফর হেলথ মেট্রিকস অ্যান্ড ইভালুয়েশনের যৌথ উদ্যোগে প্রকাশিত প্রতিবেদনের উদ্ধৃতি দিয়ে আলোচনা সভায় জানানো হয়, বায়ুতে যে ক্ষতিকর উপাদান রয়েছে, তার মধ্যে মানবদেহের জন্য সবচেয়ে ক্ষতিকর বা মারত্মক উপাদন হচ্ছে পিএম ২.৫। এতোদিন এই উপাদান সবচেয়ে বেশি উৎপাদন করতো চীন। গত দুই বছরে চীনকে টপকে ভারত ওই দূষণকারী স্থানটি দখলে নিয়েছে। ভারত ও চীনের পরই রয়েছে বাংলাদেশের অবস্থান।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]