• প্রচ্ছদ » » রিকশা নয়, পাবলিক রোডগুলো থেকে প্রাইভেটকার উঠিয়ে দিন


রিকশা নয়, পাবলিক রোডগুলো থেকে প্রাইভেটকার উঠিয়ে দিন

আমাদের নতুন সময় : 05/07/2019

বাকী বিল্লাহ

মিরপুর রোড ও এলিফ্যান্ট রোড থেকে রিকশা তুলে দেয়া হচ্ছে যানজট কমাতে। এটা বাস্তবায়িত হলে যানজট কমবে শতকরা ১ শতাংশ বড়জোর, রাস্তায় চলাচলের দুর্ভোগে পড়বেন শতকরা পঞ্চাশ শতাংশ মানুষ। এই রাস্তা দুটোয় ঘন জ্যামের সময় ভালো করে তাকালেই বোঝা যায়, জ্যামের আসল কারক কে। পুরো রাস্তা বোঝাই থাকে প্রাইভেটকারে, ফাঁকে ফাঁকে একটা-দুটো রিকশা কার্যত মূল রাস্তাগুলোতে রিকশাওয়ালারা এখন খুব একটা যেতে ইচ্ছুক থাকে না, প্রাইভেটকারওয়ালাদের জ্যামের ভয়ে। প্রাইভেটকার রাস্তার প্রায় ৮০ শতাংশ জায়গা দখল করে রাখে, যাত্রী পরিবহন করে মোটে ৬ শতাংশ। রিকশা রাস্তার ৯ শতাংশ জায়গা নিয়ে যাত্রী পরিবহন করে প্রায় ৪০ শতাংশ। রিকশা নয়, পাবলিক রোডগুলো থেকে প্রাইভেটকার উঠিয়ে দিন। দাবিটা হয়তো একটু উদ্ভট বা অন্যায্য শোনায়, কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে ২.৫ কোটি মানুষের শহরের এই সীমিত রাস্তাটুকুতে ব্যক্তিগত গাড়ি চলতে দিয়ে যানজট সমস্যার কোনো সমাধান খুঁজে পাওয়া যাবে না। আগামী বছরগুলোতে আরও অসংখ্য মানুষের গাড়ি কেনার সামর্থ্য হবে, এখনো রাস্তায় প্রতিদিন নামছে শত শত নতুন গাড়ি। একদিন দেখা যাবে, রাস্তার জট সারাদিনেও ছুটবে না, দেখা যাবে রাস্তা যতোটুকু, তার পুরোটাই প্রাইভেটকারে বোঝাই। রিকশা উঠিয়ে দিয়ে ঢাকা শহরের জ্যাম দূর করার আইডিয়া এক অলীক বস্তু, মাথায় বর্জ্য থাকলে চিন্তা ঝাপসা হয়ে এ রকম অলীক কল্পনা আসে। মাথার বর্জ্য দূর করেন। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : info[email protected]