ক্রিকেট মাঠের ক্যাপটেন চারটিখানি কথা নয়

আমাদের নতুন সময় : 06/07/2019

শেরিফ আল শায়ার : মাশরাফিকে নিয়ে অনেক নিন্দা হয়েছে, হচ্ছে। মাশরাফি এবার বিশ্বকাপে ফ্লপ। মাশরাফি ৮ ম্যাচে এক উইকেট পেয়েছে। মাশরাফি একটি মাত্র ম্যাচে ১০ ওভার বল করেছে। সে বুড়ো হয়ে গেছে… ইত্যাদি ইত্যাদি। আপনাদের কথাই হয়তো ঠিক। বাংলাদেশ সেমিতে যেতে পারেনি বলে আমরা অনেকেই হতাশ। আমরা হতাশ সিনিয়র প্লেয়ারদের মধ্যে সাকিব ছাড়া কেউ জেতার জন্য খেলেনি বলে। হয়তো সাকিবের কথাও ঠিক। তিনি বলেছেন, হারকে জয়ে পরিণত না করতে পারলে ভালো খেলার মূল্য নেই। একদিন আমরা বলতাম, আমরা যেন সম্মানজনকভাবে হেরে আসতে পারি। আমরা এখনো হেরে যাই। কিন্তু সম্মানজনক হার নয়, লড়াকু হার হারি। এটাও তো ঠিক, আকরাম-বুলবুলরা আমাদের এই মঞ্চে তুলে দিয়েছেন। মাশরাফি-সাকিব-তামিম-মুশফিক-মাহমুদুল্লাহরা আমাদের এই মঞ্চের সেরা হওয়ার স্বপ্ন দেখিয়েছে। মাশরাফির ২০১৫ থেকেই দলকে বলে এসেছে… চোখে চোখ রেখে খেলবি। আমরা চোখে চোখ রেখে খেলে যাচ্ছি। শেষ পর্যন্ত হয়তো জয় আসছে না। মঞ্চে আমাদের সেরা হওয়া হচ্ছে না। কিন্তু একদিন তো হবো। হ্যাঁ তাকে নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে না কেন? এই প্রশ্নও অনেকে করছেন। সে উন্নতি এনে দিয়েছে বলে তার বিরুদ্ধে কথা বলা যাবে না তা তো হতে পারে না। বলেন। কেউ তো মানা করেনি। মাশরাফিও মানা করেনি। কিন্তু মনে রাখবেন, ক্রিকেট মাঠের ক্যাপটেন চারটিখানি কথা নয়।
হ্যাঁ তার বলে স্পিড নেই, লাইন ঠিক নেই, ফিটনেস নেই। হয়তো কিছুই নেই। আছে একমাত্র সাহস। এই সাহসটাই তো আমাদের দরকার ছিলো। এই সাহসটাই তো আমাদের সেমিতে যাওয়ার অনুপ্রেরণা দিয়েছিলো। আপনারা এও বলেন, ক্রিকেট মাঠে আমাদের ১১ জন নয়, ১০ জন খেলে। হ্যাঁ এই দশজনকে ১ জন সাহস দিয়ে বলে, চোখে চোখ রেখে খেলো। আজকে মাশরাফিকে বিশ্বকাপ মঞ্চে শেষবারের মতো দেখবো। তার ফাইটিং ক্যারিয়ারে এটাই তার শেষ বিশ্বকাপ বলে ধরে নেয়া যায়। কতো আর খেলবে? বাংলাদেশের আজ পর্যন্ত কোনো ক্যাপ্টেনের বিদায় সুখকর হয়নি। অন্তত মাশরাফিকে একটি অসাধারণ বিদায় মুহূর্ত উপহার দিন। এটা তার প্রাপ্য। এই ভালোবাসা, সম্মান তার প্রাপ্য। মাশরাফি বাংলাদেশের ক্রিকেটে সাহস সঞ্চয় দিয়েছে। পরে হয়তো অন্য কেউ আসবে… যে এই সাহস নিয়ে বড় মঞ্চের সেরার খেতাবটা নিয়ে আসবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]