• প্রচ্ছদ » » সৈনিকের স্ত্রীর কাছে রগরগে বার্তা, তারকা খচিত পদমর্যাদা হারিয়ে বোধোদয় মার্কিন জেনারেলের


সৈনিকের স্ত্রীর কাছে রগরগে বার্তা, তারকা খচিত পদমর্যাদা হারিয়ে বোধোদয় মার্কিন জেনারেলের

আমাদের নতুন সময় : 06/07/2019

রাশিদ রিয়াজ : গভীররাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সৈনিকের স্ত্রীর কাছে মার্কিন সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল জোসেফ হ্যারিংটন ফেসবুকে জানতে চাইলেন তোমার স্বামী কোথায়, কাজে? উত্তরে ওই সৈনিকটির স্ত্রী জানালেন, কিছুক্ষণ আগেই স্বামীর সঙ্গে তার রীতিমতো যুদ্ধ (!) হয়ে গেছে এবং সে এখন গভীর ঘুমে অচেতন। এবার মার্কিন জেনারেল লিখলেন, আমি দুঃখিত, দয়া করে যৌনতাকে কৌতুকে পরিণত করো। এখানেই শেষ নয়, একবার ওই নারীর নগ্ন ছবি দাবি করে বসেন জোসেফ। আবার কখনো লিখতেন, তোমার ফিগার মডেলের মতোই আকর্ষণীয়। চেষ্টা করে দেখতে পারো।
চার মাস ধরে সহ¯্রাধিক বার্তা আদান-প্রদানের পর ধরা খেলেন মার্কিন জেনারেল। তার র‌্যাংক এক ধাপ কমিয়ে দেয়া হয়েছে। মাকিন সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে বিষয়টি উল্লেখযোগ্য ও অনৈতিক। ইতালির ভিচেঞ্জা জিমে জেনারেল হ্যারিংটনের সঙ্গে প্রথমে ওই নারীর দেখা হয়। এরপর ফেসবুকের মাধ্যমে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠে। কিন্তু তার বার্তা একপর্যায়ে আপত্তিকর ও যৌনাত্মক কটাক্ষে পৌঁছায়। একসময় জেনারেল তাকে তার নার্স হিসেবে পাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে জানান, তা তিনি তাঁবুর মধ্যে খুব উপভোগ করবেন। তবে সম্পর্ক শারীরিক পর্যায়ে গড়ায়নি। অবশ্য চতুরতার সঙ্গে তার নগ্ন ছবি আশা করে জেনারেল জোসেফ ওই নারীকে ‘হটি’ বা ‘লাভলি টিজ’ ধরনের বিভিন্ন উত্তেজক বিশেষণে সম্ভাষণ করতেন।
এ ধরনের বার্তাগুলো সম্পর্কে মার্কিন সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জেনারেল হ্যারিংটনকে দেয়া চিঠিতে তিরস্কার করে ‘ক্যারিয়ার কিলার’ বা পেশা হননকারী হিসেবে অভিহিত করা হয়। চিঠিতে বলা হয়, জেনারেল হ্যারিংটনের এহেন আচরণ একজন শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তা ও কমান্ডার হিসেবে খারাপ প্রতিফলন হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। চিঠি পাওয়ার পর জেনারেল হ্যারিংটন ওই সৈনিকের পরিবার ও সেনাবাহিনীর কাছে এক লিখিত বিবৃতিতে ক্ষমা চান। বলেন, আমাদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের ভেতর এ ধরনের আপত্তিকর বার্তা দেয়া মোটেও ঠিক হয়নি। আমি আশা করছি অন্যরা এ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করবে এবং আমার মতো ভুল এড়াতে পারবে।
তারপরও মার্কিন সেনা কর্তৃপক্ষ জেনারেল হ্যারিংটনকে তাদের এ ধরনের সংলাপ মুছে ফেলতে বলেছে। মার্কিন সেনাবাহিনীর মুখপাত্র সিনথিয়া স্মিথ বলেন, মেজর জেনারেল পদমর্যাদা থেকে মাত্র এক ধাপ নিচে নামিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, কারণ সেনাবাহিনীতে তার চমৎকার পেশাদারিত্ব ছিলো। তবে তিনি এমন আচরণ দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন যা উদাহরণ সৃষ্টি করে বলে জানান মার্কিন বিমান বাহিনীর সাবেক প্রধান আইনজীবী ডন ক্রিস্টেনসেন। অবশ্য ওই সৈনিকের স্ত্রী বলেছেন তিনি কখনো জোসেফের এসব বার্তাকে যৌন হয়রানিমূলক মনে করেননি। তবে মার্কিন ঘাঁটিতে বিষয়টি জানাজানি হলে সৈনিকদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। সূত্র : ইউএস টুডে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]