অমর্ত্য সেন বললেন, বিজেপি জয় শ্রীরাম নিয়ে ব্যবসা করছে

আমাদের নতুন সময় : 07/07/2019

দেবদুলাল মুন্না : ভারতের নির্বাচনে বিজেপির অভাবনীয় বিজয়ের পর রাজনীতিতে নতুন একটি শ্লোগান যুক্ত হয়েছে‘জয় শ্রীরাম’।এটি এখন সর্বত্র চলছে।ট্রেনে-বাসে-মহল্লায়-সংখ্যালঘু মুসলমান নির্যাতনের ক্ষেত্রেও। এমনকি ‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় একজন মুসলিমদের পিটিয়ে হত্যার মতো ঘটনাও ঘটেছে। এতে দেশটির সুশীল সমাজ উদ্বিগ্ন। নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন বলেন, ‘রামকে নিয়ে ভারতে বাণিজ্য চলছে। যারা বাণিজ্য করছেন তারা কোনোভাবেই ধার্মিক নন। লোকজনকে মারধর করতে হলে এখন এসব বলা হচ্ছে। এটি হিন্দুত্ববাদের আস্ফালন।’
তিনি বলেন, ‘যখন শুনি কাউকে রিকশা থেকে নামিয়ে কিছু একটা বুলি আওড়াতে বলা হচ্ছে এবং তিনি বলেননি বলে মাথায় লাঠি মারা হচ্ছে, তখন শঙ্কা হয়। বিভিন্ন জাত, বিভিন্ন ধর্ম, বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে পার্থক্য আমরা রাখতে দিতে চাই না। ইদানীং এটা বেড়েছে। এটি গণতান্ত্রিক সমাজের কাছে প্রত্যাশা নয়। ভারতে এখন গণতন্ত্রের নামে ফ্যাসিজম চলছে। আজ যখন শুনি বিশেষ বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষ ভীত, শঙ্কিত হয়ে রাস্তায় বের হন এই শহরে, তখন আমার গর্বের শহরকে চিনতে পারি না।’ গত শুক্রবার যাদবপুর বিশ^বিদ্যালয়ে এক সেমিনারে এসব কথা অমর্ত্য সেন বলেন। গতকাল শনিবার ‘আজকাল অনলাইনকে’কে এক ইন্টারভিউতে তিনি বলেন, ‘জয় ‘শ্রীরাম, রাম নবমী’-এসব কোনো কিছুর সঙ্গেই বাঙালির কোনো যোগ নেই।এখানে দুর্গাপুজো হয়। এক সময় হিন্দু মহাসভা এ ধরনের সংস্কৃতির আমদানি ঘটানোর চেষ্টা করেছিল বাংলায়। বিভেদের রাজনীতির বাতাবরণ তৈরি করার চেষ্টা করেছিল। এখন বিজেপি ঠিক সেই একই উদ্দেশ্যে বাংলায় ‘জয় শ্রীরাম’ সংস্কৃতির আমদানি ঘটানোর চেষ্টা করছে।’ সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]