• প্রচ্ছদ » » জীবিত এরশাদকে যারা সম্মান দেখাতে পারেননি তারা যেন মৃত এরশাদকে সম্মান দেখান


জীবিত এরশাদকে যারা সম্মান দেখাতে পারেননি তারা যেন মৃত এরশাদকে সম্মান দেখান

আমাদের নতুন সময় : 07/07/2019

মাহফুজুর রহমান

এরশাদের দোর্দÐ প্রতাপের কথা সবাই জানে, তার ভালোটাও যেমন জানে তেমন খারাপটাও মানুষ জানে। দীর্ঘ ৯ বছরের উপরে তিনি দোর্দÐ প্রতাপের সঙ্গে রাষ্ট্র শাসন করেছেন। ক্ষমতায় থাকতে তাার বুট পালিশ করতে কতো পÐিত উন্মুখ হয়ে থাকতেন! তার কাছ থেকে উপকার পায়নি এমন মানুষ খুব কম। উপকার পাওয়াদের অনেকেই দিনের বেলায় রাজপথে এরশাদের গোষ্ঠী উদ্ধার করলেও রাতের বেলা সাক্ষাতের সুযোগ খুঁজতেন। আজকের সরকারের নীতিনির্ধারকদের কেউ কেউ তখন এরশাদের কৃপা লাভে নির্লজ্জ হতেন। বামদের অনেককেই তিনি মাসোহারা দিতেন, উপঢৌকন দিতেন, তবে আজকের মতো মন্ত্রী বানিয়ে দিলেই হয়তো ক্ষমতা পোক্ত হতো! সাংবাদিকদের প্রায় সবাইকে তিনি সন্তুষ্ট করতেন, আজকের আধুনিক প্রেসক্লাব তিনিই দিয়েছেন, দিয়েছেন সাংবাদিক প্লট। দুনিয়ার প্রখ্যাত শাসকদের কেউ একশ শতাংশ সবার কাছে ভালো হতে পারেননি, এরশাদের বেলাতেও তাই। উন্নয়নে, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, আন্তর্জাতিক ক‚টনীতির সফলতা তার হিমালয়সম। এরশাদের হাতেই এই দেশের স্বাধীনতার স্মৃতি সৌধ, জাতীয় সংসদ ও অসংখ্য কৃর্তি দৃশ্যমান । দুনিয়ার কোনো প্রতাপশালী শাসকেরই দিন সমান যায়নি , বয়স বাড়ে, অসুস্থ হয়, অতঃপর একদিন মৃত্যু হয়, এরশাদের বেলাতেও তাই। তবে ব্যথিত হই কিছু বন্ধুর আপত্তিকর কথা বানে। সেসব বন্ধুরা যদি ক্ষমতা পান তাহলে কি ভালো চালাতে পারবেন? আমার ব্যক্তিগত অভিমত, জীবিত এরশাদকে যারা সম্মান দেখাতে পারেননি তারা যেন মৃত এরশাদকে সম্মান দেখান। আর রাষ্ট্রের কাছে অনুরোধ, এরশাদকে যেন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত করা হয়। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]