• প্রচ্ছদ » » বঙ্গবন্ধুর ঘাতকদের ‘দেশীয় দ্বিতীয় আশ্রয়পিতা’ এরশাদ, ‘প্রথম আশ্রয়পিতা’ জেনারেল জিয়াউর রহমান


বঙ্গবন্ধুর ঘাতকদের ‘দেশীয় দ্বিতীয় আশ্রয়পিতা’ এরশাদ, ‘প্রথম আশ্রয়পিতা’ জেনারেল জিয়াউর রহমান

আমাদের নতুন সময় : 07/07/2019

হাসান শান্তনু

দেশে প্রকৃত আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা পেলে পতিত স্বৈরাচারী হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আজও হয়তো থাকার কথা ছিলো কারাগারের কোনো কক্ষে। ক্ষমতা দখল করে রাষ্ট্রপতি থাকাকালে দুর্নীতি, লুটপাট, সেনাবাহিনীর অভ্যন্তরে হত্যাকাÐ ইত্যাদির দায়ে। ‘সব সম্ভবের দেশ’ বলেই এরশাদ মুক্ত বাতাসে থাকাকালে অসুস্থ হয়ে অভিজাত হাসপাতালে আছেন। সরকারের একটা অংশ একপায়ে খাড়া, তাকে রাষ্ট্রীয় কোষাগারের টাকা নষ্ট করে বিদেশে চিকিৎসা করাতে।
বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাঙালির হাজার বছরের শ্রেষ্ঠতম অর্জন সংবিধানকে দ্বিতীয়বারের মতো ভয়ানক কলুষিত করেন এরশাদই কথিত রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম যোগ করে। বঙ্গবন্ধুর ঘাতকদের ‘দেশীয় দ্বিতীয় আশ্রয়পিতা’ এরশাদ, ‘প্রথম আশ্রয়পিতা’ জেনারেল জিয়াউর রহমান। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাÐকে জনগণের কাছে কথিত জায়েজের উদ্দেশ্যে এরশাদের সমর্থন, সহায়তায় তার সরকারের আমলে ঘাতকরা প্রকাশ করে দৈনিক মিল্লাত পত্রিকা। বঙ্গবন্ধুর ঘাতকদের পুরস্কৃত করার পাশাপাশি এরশাদের আমলেই জাতির জনকের তনয়া শেখ হাসিনাকে চট্টগ্রামে প্রথম প্রকাশ্যে হত্যার ষড়যন্ত্র হয়। মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাকারীদের পক্ষেই এরশাদের অবস্থান। সংবিধানে বন্দুকের নলের জোরে রাষ্ট্রধর্ম বসিয়ে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানদের এদেশের ‘দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিকে’ পরিণত করেন সাবেক স্বৈরশাসক এরশাদ। তিনি হয়তো আর বেশিদিন বাঁচবেন না, তাই তার সমালোচনা করলে ধর্মের দোহাই দিয়ে একশ্রেণির মুসলমান উসকে উঠেন। যা নিতান্তই উগ্রতা। আবু লাহাব মারা গেছেন চৌদ্দশো বছরের বেশি সময় আগে। তার ‘হাত দুটির’ ধ্বংস কামনা এখনো প্রতিদিনই মুসলমানরা করেন।
জনগণের হক বা অধিকার আত্মসাৎ করলে সৃষ্টিকর্তার কাছে ক্ষমা পাওয়া যায় না বলে ইসলাম ধর্মে স্পষ্ট উল্লেখ আছে। ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর এরশাদের দুর্নীতির তথ্য বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনেও উঠে আসে। মৃত্যুর এতোগুলো বছর পরও হিটলারের সমালোচনা চলছে। নানা কালে পৃথিবীতে আসা সামরিক, একনায়ক, অত্যাচারী শাসকদের নাম ঘৃণার সঙ্গেই উচ্চারিত হয়। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিপক্ষে গিয়ে জাতির মধ্যে ধর্মগত বিভাজন, সংখ্যালঘুদের ‘দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক’ বানানোসহ নানা কুকীর্তির কারণে এরশাদের নামও সেসব শাসকের তালিকায় যোগ হবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]