• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » রাজধানীতে উপরতলার ফ্ল্যাটে খেলতে গিয়ে ধর্ষণ ও হত্যার শিকার হলো ৬ বছরের শিশু সায়মা


রাজধানীতে উপরতলার ফ্ল্যাটে খেলতে গিয়ে ধর্ষণ ও হত্যার শিকার হলো ৬ বছরের শিশু সায়মা

আমাদের নতুন সময় : 07/07/2019


মাসুদ আলম ও মোস্তাফিজুর রহমান : ওপর তলার একটি ফ্ল্যাটে প্রায় প্রতিদিনের মত বিকেলে খেলতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বেরিয়ে লাপাত্তা হয়ে যায় ৬ বছরে শিশু সায়মা। সন্ধ্যার পরও ঘরে না ফিরলে খোঁজাখুঁজি করতে গিয়ে রাত আটটা নাগাদ শিশুটির রক্তাক্ত মৃতদেহ পাওয়া যায় ভবনের সবচেয়ে উপর তলায় একটি শূন্য ফ্ল্যাটের রান্নাঘরে। গতকাল সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ জানান, শিশুটিকে জবরদস্তি করে ধর্ষণ করা হয়েছে। তারপর গলায় রশি পেঁচিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে ওই শিশুর মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি। রাজধানীর ওয়ারীর বনগ্রামে এক ফ্ল্যাটভবনে সংঘটিত এ ঘটনায় বাড়ির মালিকসহ ৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
সোহেল মাহমুদ বলেন, শিশুটির মুখে কামড়ের দাগ পাওয়া গেছে। যৌনাঙ্গে ক্ষত চিহ্ন। এছাড়া তার ‘হাই ভ্যাজাইনাল সফট’ পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। পরীক্ষার প্রতিবেদন পেলে পূর্ণাঙ্গ তথ্য দেয়া হবে।
শিশুটির বাবা আব্দুস সালাম বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যায় মাগরিবের আজানের সময় নামাজ আদায়ে মসজিদে যান তিনি। মসজিদ থেকে ফেরার সময় সন্ধ্যার নাশতা কিনে বাসায় ফেরেন তিনি। বাসায় ফেরে দেখতে পান সায়মা নেই। সন্ধ্যার পর ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সায়মা তার মাকে বলেছিলো ‘উপরে পাশের ফ্ল্যাটে খেলাধুলা করতে যাচ্ছে। এরপর থেকে নিখোঁজ হয় সায়মা। অনেক খোঁজাখুঁজির পর নির্মাণাধীন ওই ভবনের ৯তলায় খালি ফ্ল্যাটের রান্না ঘরে গলায় রশি দিয়ে বাঁধা ও মুখে রক্তাক্ত অবস্থায় সায়মাকে দেখতে পাই।
ওই ভবনের ৬ষ্ঠ তলায় পরিবারের সঙ্গে থাকতো সায়মা। সিলভারডেল স্কুলে নার্সারিতে পড়তো সায়মা। সালাম নবাবপুরে ব্যবসা করেন। দুই ভাই ২ বোনের মধ্যে সবার ছোট সায়মা। তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর শিবপুর ।
ওয়ারী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সায়মা প্রতিদিন বিকালে নিচে ও ভবনের উপরের ফ্ল্যাটে অন্য বাচ্চাদের সঙ্গে খেলতে যেতো। কিন্তু ওই দিন খেলতে গিয়ে আর ফিরে আসেনি। এ ঘটনায় শনিবার শিশুটির বাবা আব্দুস সালাম বাদি হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে ওয়ারী থানায় একটি মামলা করেছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির মালিক, নিরাপত্তাকর্মী ও তার ছেলেসহ ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। শিশুটির মুখে রক্ত ও গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। অতিদ্রুত এ হত্যাকা-ের রহস্য উদঘাটন করা হবে। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]