ট্রাম্পকে অদক্ষ ও অযোগ্য বললেন ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত

আমাদের নতুন সময় : 08/07/2019

সুস্মিতা সিকদার : ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত কিম ডারোচ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার প্রশাসনকে অদক্ষ, অনিরাপদ ও অযোগ্য বলে অভিহিত করেন। ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের একটি ইমেইল ‘দ্য মেইলে’ ফাঁস হওয়ার পর এসব কথা জানা যায়। এব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর জানিয়েছে, তথ্য ফাঁসের বিষয়টি খুব খারাপ, তবে তারা তাদের অদক্ষতার বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করেছেন। বিবিসি
তথ্য ফাঁসের ব্যাপারে হোয়াইট হাউজ এখনও কিছু জানায়নি।
ওই বার্তায় যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত কিম ডারোচ বলেন, আমরা ট্রাম্প প্রশাসনকে বিশ্বাস করতে পারি না। কারণ এই প্রশাসন অকার্যকর, অদূরদর্শী, কুটনৈতিকভাবে কম বিচক্ষণ ও অদক্ষ। তিনি আরো সতর্ক করেন, যদিও ট্রাম্প গত জুনে যুক্তরাজ্য সফরে গিয়ে সবাইকে খুব মাতিয়েছেন কিন্তু তার প্রশাসন ব্যক্তি স্বার্থকে সবসময় কুক্ষিতগত রাখে। আমেরিকা প্রথম এই নীতিতেই তারা বিশ্বাসী।
ওই বার্তায় বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে জলবায়ু পরিবর্তন, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং মৃত্যুদ- বিষয়ে মত পার্থক্য থাকলেও ব্রেক্সিটের পর দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক উন্নতি হবে বলে আশাপ্রকাশ করা হয়।
ব্রেক্সিট পার্টির নেতা নাইজেল ফারাজে ব্রিটিশ কূটনীতিকের ওই বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করেছেন। তাকে রাষ্ট্রদূতের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদের জন্য অযোগ্য বলে উল্লেখ করেন। নাইজেল ফারাজে বলেন, তিনি যতদ্রুত সম্ভব দায়িত্ব ছেড়ে দিলেই আমাদের জন্য ভালো হয়।
যুক্তরাজ্যের বিচার বিভাগীয় মন্ত্রী ডেভিড গুয়াকে বলেন, একজন রাষ্ট্রদূত দেশকে সৎ ও অনলংকৃত পরামর্শ দেবে- এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বার্তাটি ফাঁস হওয়াটা খুবই লজ্জাজনক তবে আমরা আশা করি, আমাদের রাষ্ট্রদূত সব সময় সত্য কথা বলবে।
‘দ্য মেইল’ রোববার জানিয়েছে, ব্রিটেন সিভিল সার্ভিসে কর্মরত কয়েজন ওই তথ্য ফাঁস করে দিয়েছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]