ভারতে গাছে পেরেক পুঁতলে জরিমানা

আমাদের নতুন সময় : 08/07/2019

রাশিদ রিয়াজ : ভারতের লোকসভার চলতি বর্ধিত বাজেট অধিবেশনে পুর-দপ্তর রাস্তা, হাসপাতাল-সহ প্রকাশ্য জায়গায় থুতু ফেলা বন্ধে আইনে সংশোধনী এনেছে। এই আইনের আওতাতেই বিধি তৈরি করে শহর-এলাকায় গাছের গায়ে পেরেক পোঁতা বন্ধ করতে চাইছেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। টাইমস অব ইন্ডিয়া। কমবেশি সবারই চোখে পড়ে ব্যাপারটা। ছোট-বড় গাছে পেরেক পুঁতে লটকে দেওয়া হয়েছে বিজ্ঞাপন। ছোট হোর্ডিং। এই যেমন কলকাতা থেকে যশোহর রোড ধরে বারাসত পেরিয়ে এগোতে থাকলেই দেখা যাবে, রাস্তার দু-ধারে বড় বড় গাছের গায়ে অজ¯্র বিজ্ঞাপন পেরেক দিয়ে আঁটা। রীতিমতো ক্ষতবিক্ষত অনেক গাছ। একই ছবি অন্যত্রও।  কিন্তু গাছ কাটা রুখতে আইন থাকলেও গাছের গায়ে পেরেক দিয়ে বিজ্ঞাপন সাঁটা মোকাবিলায় কোনও বিধি নেই রাজ্যে। দু’একটি পরিবেশপ্রেমী সংগঠন এ নিয়ে অতীতে সরব হয়েছে বা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে। কিন্তু এই প্রবণতা রোধে প্রশাসনিক স্তরে সার্বিক পদক্ষেপ কখনও হয়নি। রাজনীতিবিদদেরও বিশেষ ভাবনাচিন্তা করতে দেখা যায়নি। এই প্রথম এ নিয়ে পুর-আইনের আওতায় বিধি তৈরি করতে চলছে রাজ্য। বিধি অনুসারে গাছের গায়ে পেরেক পোঁতা হলে জরিমানা হতে পারে।

পুরুলিয়ার কংগ্রেস বিধায়ক সুদীপ মুখোপাধ্যায় গাছের গায়ে পেরেক পুঁতে বিজ্ঞাপন দেওয়া ঠেকাতে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন ফিরহাদের কাছে। সুদীপের যুক্তি ছিল, ‘আমরা সব সময় বলি, একটি গাছ একটি প্রাণ। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]