• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » রমনা পার্ক উন্নয়ন আগষ্ট থেকে শুরু, পুরানো গাছ থাকবে, জানালেন গণপূর্ত অধিদপ্তর


রমনা পার্ক উন্নয়ন আগষ্ট থেকে শুরু, পুরানো গাছ থাকবে, জানালেন গণপূর্ত অধিদপ্তর

আমাদের নতুন সময় : 08/07/2019

সুজিৎ নন্দী : পূর্ত মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদনের পরেই রমনা পার্ক উন্নয়নে কাজ শুরু হবে। পুরানো গাছ সংরক্ষণ করে ছোট গাছ কাটা হতে পারে। টেন্ডার মূল্যায়নের সার্বিক বিষয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে পাঠনো হবে। আগামী বছর ডিসেম্বরে প্রকল্পের কাজ শেষ হবে। প্রকল্প ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৭ কোটি ৯৬ লাখ টাকা। প্রয়োজনে ব্যয় বাড়ানো হবে। বর্তমানে ৩৮ কোটি টাকার টেন্ডার হয়েছে। গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এতথ্য জানা যায়।
জানা যায়, টেন্ডারে ৩টি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান অংশ গ্রহণ করে। প্রতিটি প্রাক্কলিত দরের চেয়ে ১০ ভাগ কমে দর দাখিল করেছে তিনটি ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান। যে প্রতিষ্ঠানের কাজের অভিজ্ঞতা বেশি তারা কাজ পাবে। গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সাহাদাত হোসেন বলেন, এখন রমনাপার্কে আসেন তারা দেখবেন নতুন পার্ক। শিঘ্রই উন্নয়ন কাজ শুরু হবে। আধুনিক ওয়ার্কওয়ের পাশাপাশি অবসর যাপনের মুক্ত জায়গা রমনা পার্ক নতুন সাজে সাজবে। বর্ষা মৌসুম শেষে লেক খনন কাজ শুরু হবে।
জানা যায়, পার্কের উন্নয়ন কাজের শুরুতে টিনের বেড়া দিয়ে ঘিরে থাকবে। লেক পুনঃখনন করে বাড়ানো হবে দৈর্ঘ্য, থাকবে আধুনিক বেঞ্চ ও লেকের ওপর ব্রিজ। সারা বছর পানি রাখার ব্যবস্থার পাশাপাশি করা হবে পর্যাপ্ত আলোকসজ্জা এবং ল্যান্ড স্কেপিং বনায়ন।
রমনা পার্ক উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক ও তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলী এ, কে, এম, সোহরাওয়ার্দ্দী বলেন, বর্ষা মৌসুমের বিষয়টি মাথায় রেখে কাজ শুরু করা হবে। পুরো কাজ শেষ হলে রমনা পার্কের দৃশ্যে মুগ্ধ হবেন দর্শনার্থীরা। মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদনের পরেই কাজ শুরু হবে।
নগর গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শওকত উল্লাহ বলেন, প্রকল্প অনুযায়ি রমনার লেক খনন করে দৈর্ঘ্য বাড়ানো হবে। দর্শনার্থীদের বসার বেঞ্চ নির্মাণ, লেকের ওপর ব্রিজ নির্মাণ করা হবে। সম্পাদনা : ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]