• প্রচ্ছদ » সাবলিড » বায়ু দুষণে প্রতি বছর দেশে মারা যাচ্ছে ১ লাখ ২৩ হাজার মানুষ


বায়ু দুষণে প্রতি বছর দেশে মারা যাচ্ছে ১ লাখ ২৩ হাজার মানুষ

আমাদের নতুন সময় : 09/07/2019

মতিনুজ্জামান মিটু : আর চীন ও ভারতে মারা যায় ১২ লাখ মানুষ। শুধুগ্রামে বা শহরতলীতে নয়, বায়ু দূষণের সমস্যা এখন সারা বাংলাদেশে। বিভিন্ন সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে এসব তথ্য জানান, পরিবেশ বিশেষজ্ঞ ও ইকো-ক্যানেডার সার্টিফায়েড মেম্বর জাহিদ হাসান। বায়ু দূষণকে মানবসৃষ্ট কালোব্যাধি উল্লেখ করে তিনি জানান, ঢাকা ও অন্যান্য বড় শহরগুলোতে বিপদজনক মাত্রায় বর্ধিত কলেবরে পরিবেশ এবং বায়ু দূষণের যে প্রতিযোগিতা চলছে। তা জনস্বাস্থ্যের জন্য ভয়াবহ হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

পরিবেশ অধিদপ্তরের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, শুষ্ক মৌসুমে যে নির্মাণ কাজগুলো হচ্ছে তাতে সকাল বিকেল দুই বেলা, নির্মাণ সামগ্রী বিশেষ করে ইট ও বালু পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখার নিয়ম রয়েছে। কিন্তু রাজধানীসহ অন্যান্য শহরে বেশিরভাগ সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান তাদের নির্মাণ সামগ্রী যত্রতত্র ফেলে রেখে ধুলা সৃষ্টি করে দূষণের মাত্রা বাড়িয়ে তুলছে।

এখানে বায়ু দূষণের দৃশ্যপট অনেকটাই নৈরাজ্যজনক। চলন্ত বা আটকে পড়া গাড়ি থেকে কালো ধোঁয়া নির্গমন, নির্মাণাধীন ভবন ও রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ির কাজের ইট-পাথর-সিমেন্ট প্রভৃতি থেকে ছড়িয়ে পড়া দূষিত পদার্থ জনস্বাস্থ্যের জন্য বিশেষ করে শিশু, বয়স্ক ও গর্ভবতীদের জন্য মারাত্মক বিপদজনক। গবেষকদের বরাতে তিনি আরো বলেন, বয়স্ক মানুষের ক্ষেত্রে বায়ুদূষণের ঝুঁকি কমানো বেশ কঠিন কাজ। এবছরের প্রতিবেদন অনুযায়ী বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত দেশের তালিকার শীর্ষে স্থান পেয়েছে বাংলাদেশ, এরপরই রয়েছে পাকিস্তান ও ভারত। আইকিউএয়ার, এয়ারভিজুয়াল ও গ্রিনপিসের গবেষণা প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

পরিবেশ বিশেষজ্ঞ জাহিদ হাসান জানান, এই অবস্থা থেকে উত্তরণ কঠিন কাজ হলেও অসম্ভব কিছু নয়। আর এখনই এই উত্তরণ না ঘটালে গড় আয়ু কমবে, ঘটবে অকাল মৃত্যু। এইসঙ্গে রোগবালাই বেড়ে যাবে অসহনীয় পর্যায়ে। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]