• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » খুশি কবির বললেন, নারী-পুরুষ সম্মিলিত প্রতিরোধে ধর্ষণ ও শিশুর প্রতি হিং¯্রতা দূর হবে


খুশি কবির বললেন, নারী-পুরুষ সম্মিলিত প্রতিরোধে ধর্ষণ ও শিশুর প্রতি হিং¯্রতা দূর হবে

আমাদের নতুন সময় : 11/07/2019

আমিরুল ইসলাম : শিশুর প্রতি হিং¯্রতা বাড়ছেই। ছয় মাসে ধর্ষণের ঘটনা দ্বিগুণ। বড় শিকার ৭-১২ বছর বয়সী মেয়েরা। এর কারণ কি এবং এটা দমন করার জন্য কি ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন জানতে চাইলে মানবাধিকার কর্মী খুশি কবির বলেছেন, নারী-পুরুষ সম্মিলিত হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুললে এসিড নিক্ষেপের মতো ধর্ষণ ও শিশুর প্রতি হিং¯্রতাও সমাজ থেকে কমে যাবে।

তিনি বলেন, শিশুর প্রতি হিং¯্রতা বাড়ার অনেকগুলো কারণ রয়েছে। প্রথম কারণ হচ্ছে সমাজের মানসিকতা। আমাদের সমাজের পুরুষদের মধ্যে একটা পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতা রয়েছে। সব পুরুষের মধ্যেই রয়েছে এমনটা নয়। তারা মনে করে পুরুষরা এমনটা করবেই। এটার সঙ্গে আমরা দেখি যে ধরনের বক্তব্য সিনেমা, ওয়াজ মাহফিলে এবং লেখালেখির মাধ্যমে প্রকাশ করা হয় তাতে পুরুষতান্ত্রিকতার ছোঁয়া থাকে। যারা শ্রোতা বা পাঠক তারা এটা গ্রহণ করে। ওয়াজ মাহফিলে ধর্মের কথা যতোটুকু বলা হয় তার চেয়ে বেশি বলা হয় নারীর পোশাকের সম্পর্কে, নারী কীভাবে চলাফরা করবে? এগুলো সব শ্রোতার-পাঠকের মাথার মধ্যে ঢুকে যায়। তখন তারা মনে করে নারীর উপর অত্যাচার করা জায়েজ। নারীকে যখন পায় না তখন তারা শিশুদের উপর অত্যাচার করা শুরু করে। যে দুর্বল তার উপরই তারা ঝাঁপিয়ে পড়ে। যখন দেখা যায় নারীদের উপর অত্যাচার করে পার পেয়ে যাচ্ছে তখনই শিশুদের উপর হিং¯্রতা চালায়। যাদেরকেই সামাজিকভাবে দুর্বল মনে করা হচ্ছে তাদের উপরই হিং¯্রতা চালানো হচ্ছে।  এটা হচ্ছে একটা সামাজিক ব্যাধি। এ ব্যাপারে সরকারের কঠোর ভূমিকা নেয়া উচিত। এসিড নিক্ষেপ এক সময় একটা মহামারী আকার ধারণ করেছিলো আমাদের সমাজে। সেটা সব ব্যক্তি, সংগঠন ও সরকার থেকে চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে এবং কঠোর ব্যবস্থা নিয়ে কমিয়েছে। শিশুর প্রতি হিং¯্রতা ও ধর্ষণের ক্ষেত্রেও যদি সরকার নারী-পুরুষ সবাইকে সম্মিলিত করে সরকার-এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় তাহলে এটা দমন করা যাবে বা কমানো যাবে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]