যেখানে গণকবর আছে সেখানেই মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণ করা হবে, বললেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 12/07/2019

এএইচ রাফি : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, সরকার গণকবর সংরক্ষণের কাজ শুরু করেছেন। যেখানে গণকবর আছে সেখানেই মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণ করা হবে। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া আশুগঞ্জ উপজেলার সোনারামপুরে মুক্তিযুদ্ধকালে শহীদ মিত্রবাহিনীর সদস্যদের স্মরণে স্মৃতি স্তম্ভ নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পের স্থান পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জাবাবে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা কোনোভাবেই আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবে না। যদি কোথাও সদস্য হয়ে থাকে তাহলে তাকে বহিস্কার করা হবে। এটা নিয়ে বিতর্কের কিছু নেই। মন্ত্রী বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কোনো অবস্থাতেই থমকে যাবে না। পর্যায়ক্রমে যুদ্ধাপরাধীদের শাস্তি হচ্ছে। যারা খুব বড় যুদ্ধাপরাধী তাদের বিচারের কথা পত্র-পত্রিকায় ওঠে, মানুষ জানতে পারে। যারা নিম্নপর্যয়ে স্বাধীনতার বিরোধীতা করেছে-তাদের যে যাবজ্জীবন বা অন্যান্য শাস্তি হচ্ছে সেগুলো পত্র-পত্রিকায় আসেনা বলে মনে হচ্ছে যে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কাজ স্থগিত হয়েগেছে। কিন্তু বিচার কাজ চলমান আছে। এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়েল সচিব এস.এম আরিফ উর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান, আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হানিফ মুন্সি, আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজিমুল হায়দার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর দফতর) আবু সাঈদ, বাংলাদেশ আইন সমিতির সভাপতি কামরুজ্জামান আনসারী ও আশুগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ইকবাল হোসেন প্রমুখ। সম্পাদনা : ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]