• প্রচ্ছদ » » ‘ফাদার ডটার সেক্স’ লিখে সার্চ দিতে আপনাদের লজ্জা লাগে না


‘ফাদার ডটার সেক্স’ লিখে সার্চ দিতে আপনাদের লজ্জা লাগে না

আমাদের নতুন সময় : 13/07/2019

নিশীতা মিতু

পুরো নিউজফিডে ঘুরছে একটা নিউজ। ‘স্ত্রীকে অচেতন করে মেয়েকে ধর্ষণ, গ্রেফতার বাবা’। মানে ভয়াবহতা ঠিক কতখানি বুঝতে পারছেন? যে বাবার শুক্রাণু থেকে জন্ম সেই বাবাই ধর্ষণ করছে। এর চেয়ে নিকৃষ্ট আর কী হতে পারে! সেক্স নিয়ে আপনাদের ফ্যান্টাসির শেষ নাই। ‘মা-ছেলের চু…’, ‘ফাদার ডটার সেক্স’ লিখে সার্চ দিতেও আপনাদের লজ্জা লাগে না। দিনের পর দিন ইয়াবা আসক্তি আর পর্নো ভিডিও দেখার পর আপনাদের সামনে কেবল একটা দেহ লাগে। হোক সেটা মা, মেয়ে কিংবা নিজের বোন। হ্যাঁ, এতোটাই নোংরা আপনারা! দিন দুয়েক আগে আসাদ গেটে ‘আংকেল প্লিজ ডোন্ট রেইপ মি’ লেখা ব্যানার হাতে এক বাচ্চা মেয়ে দাঁড়ানোতে আপনার পিত্তি জ্বলে যাচ্ছিলো। অতোটুকু মেয়ে রেপের কী বোঝে, ধর্ষককে আংকেল কেন বলবে? আপনারা সার্কাজম বোঝেন? আপনারা কি জানেন যাদের হাতে ছোট্ট শিশুগুলো ধর্ষিত হচ্ছে তারা এক মুহূর্ত আগেও তাদের আংকেল হিসেবেই চিনতো। হ্যাঁ, যখন সেই জানোয়ারগুলো তাদের শরীরের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিলো তখন তারা বলতে পারেনি ‘ওই কুত্তার বাচ্চা, সরে যা’। তারা আকুতি করেই বলেছিলো, ‘আংকেল আমার সাথে এমন করো না প্লিজ’। ওদের অতোটুকু বয়স হয়নি যে আংকেল আর জানোয়ারের তফাৎ বুঝবে। আপনারা নিজেরা প্রতিবাদ করবেন না আবার অন্যের প্রতিবাদের ভুল ধরবেন। এতো বাজে কেন আপনারা? আরেক দল নারী আবার এসব প্রতিবাদের বিরুদ্ধে। তারা ‘মেয়ে মানুষকে একটু সহ্য করতেই হয়’- নীতিতে বিশ্বাস করেন। আর যারা প্রতিবাদের বিরুদ্ধে থাকা লোকগুলোকে সাপোর্ট করেন, তাদের বলি- এই লোকগুলোই আপনাকে সামনে দেখে ওড়নার নিচের পুরুত্ব মাপে, এই লোকগুলো আপনাকে চোখ দিয়ে প্রতিনিয়ত ধর্ষণ করে। আপনি বুঝতে পারেন না। কারণ এতোটুকু বোঝার ক্ষমতাও আপনার বা আপনাদের নেই!
২০১৭ সালের ডিসেম্বরের কথা। একটা রেস্টুরেন্টে বসে ছিলাম। কিশোরী এক মেয়ে আর তার বান্ধবী বসেছে পাশে। হুট করেই সে কাঁটা কম্পাস দিয়ে হাত কাটতে গেলো। কাছে গেলাম। কী হয়েছে শুনতে চাইলাম। ধারণা করেছিলাম, প্রেমিক সংক্রান্ত কিছু। না, তার খালু প্রতিনিয়ত সেক্সুয়াল হ্যারজমেন্ট করে তাকে। খালাকে বলতে না পেরে মা কে বলেছে। মা উল্টো থাপ্পড় দিয়েছে। তাকে বেয়াদব বলা হয়েছে। অথচ এই মেয়েটা ধর্ষিত হওয়ার পর মা বলবে, আমি বুঝতেই পারিনি নিজের বোনের জামাই এতো খারাপ হবে। প্রিয় মায়েরা, আপনাদের মেয়েদের কথা শুনুন, তাকে বুঝুন। তার শরীরে নোংরা হাত পড়লে যদি সে প্রতিবাদ করে আর আপনার কাছে তা বেয়াদবি মনে হয়, তবে প্লিজ তাকে খুব বেয়াদব হতে দিন। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]