• প্রচ্ছদ » » ‘ ভারতবিরোধিতা’, মওলানা ভাসানী এবং বাংলাদেশের লাভ-ক্ষতির হিসাব


‘ ভারতবিরোধিতা’, মওলানা ভাসানী এবং বাংলাদেশের লাভ-ক্ষতির হিসাব

আমাদের নতুন সময় : 14/07/2019

ইমতিয়াজ মাহমুদ

যেসব রাজনৈতিক দল নেতাকর্মী বা সমর্থক ‘যেকোনো অবস্থায়ই ভারতবিরোধিতা’ এবং ‘মওলানা ভাসানী একজন মহান নেতা’ এই দুইটা পূর্বধারণা অলঙ্ঘনীয় মন্ত্র হিসেবে ধারণ করেন এবং সেটাতে অটল থাকেন তাদের আমি আমার সম্প্রদায়ের জন্য অর্থাৎ বাংলাদেশের মানুষের জন্য এবং বাংলাদেশের জন্য ক্ষতিকর বিবেচনা করি। এই দুই ব্যাকটেরিয়ার জন্য অ্যান্টিবায়োটিক দরকার, প্রোবায়োটিক দিয়েও চিকিৎসা সম্ভব। পর্যাপ্ত অ্যান্টিবায়োটিক ও প্রোবায়োটিক আমাদের সমাজ ইতিহাস ও রাজনীতিতে মওজুদ আছেও। মুশকিল হয়েছে যে মহলটি এই দুই ব্যাকটেরিয়া জিইয়ে রাখতে চান ওরা খুব প্রবল। এছাড়া প্রায় সব ক্যাম্পেই কিছু কিছু বৈদ্য বিদ্যমান আছেন, যারা এই ব্যাকটেরিয়াগুলোকে জিইয়ে রাখতে চান। কেন চান? একেকজনের একেক রকম কারণ আছে। কেউ কেউ ভাবেন ব্যাকটেরিয়া আক্রান্ত লোকগুলোকে পক্ষে রাখতে হবে… নেশাড়ুদের পক্ষে রাখতে যেরকম লোকে নেশার দ্রব্য সরবরাহ অব্যাহত রাখে সেরকম। একদল আবার এই দুই পূর্বানুমানকে সর্বান্তকরণে মানেন না বটে, আবার সেরকম ক্ষতিকর কিছু মনে করেন না। মনে রাখবেন এই দুইটা পূর্বানুমানই সাম্প্রদায়িকতার জন্য পোস্টাই উপাদান রয়েছে। এই দুইটা ব্যাকটেরিয়াই বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও আমাদের স্বাধীনতার ভিত্তিমূলের বিরোধিতাকে পোক্ত করে। আপনারা বুদ্ধিমান, আলাপ বিস্তার ও ঝালাতে আর গেলাম না। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]