• প্রচ্ছদ » » নতুন প্রজন্ম কী জানে ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ পর্যন্ত কি ঘটেছিলো এই দেশে?


নতুন প্রজন্ম কী জানে ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ পর্যন্ত কি ঘটেছিলো এই দেশে?

আমাদের নতুন সময় : 18/07/2019

আলাউদ্দিন আল আজাদ

১৯৯০ সালে স্বৈরশাসক এরশাদের পতনের সময় যারা অপ্রাপ্তবয়স্ক ছিলো এবং ৯০-এর পরে যাদের জন্ম হয়েছে এই নতুন প্রজন্ম বিশ্ব বেহায়া সম্পর্কে এবং ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাস কিছুই জানে না, জানারও চেষ্টা করে না। পড়াশোনা করে না শুধু ফেবুতে দু-চার কথা লিখে জ্ঞানী সাজতে চায়। এই প্রজন্মের অনেকেই এরশাদের মৃত্যুতে হা-হুতাশ করছেন এবং তার কোনো দোষ খুঁজে পাচ্ছেন না। অবাক করা বিষয়, এর মধ্যে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীও আছে। ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ সাল। কী ঘটেছিলো বাংলাদেশে? আমরা যারা এই সময়টার প্রত্যক্ষদর্শী আমরা জানি কি ভয়াবহ দুঃশাসনের স্টিমরোলার চালিয়েছেন বিশ্ব বেহায়া, ক্ষমতা জবরদখলকারী, নারীলোভী, ভÐ স্বৈরশাসক এরশাদ। তৎকালীন বাংলাদেশের ১৫ কোটি মানুষ এই স্বৈরশাসকের বিরুদ্ধে প্রাণপণ লড়াই করেছে। এমন ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের পর জাতি আর প্রত্যক্ষ করেনি। শত শত ছাত্র জনতা আত্মাহুতি দিয়েছে এই স্বৈরাচারের বুলেটের আঘাতে। তার সে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আঘাত করে মৌলবাদী, জঙ্গি রাজনীতি চালু করেছেন, জনগণের দাবি না থাকা সত্তে¡ও রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম করে সংখ্যা লঘুদের দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিকে পরিণত করেছেন, বোববারের পরিবর্তে শুক্রবার ছুটি ব্যবসা-বাণিজ্য আর আমদানি-রপ্তানির বারোটা বাজিয়েছেন। ইসলাম ধর্মকে খুব কুৎসিতভাবে ব্যবহার করেছেন ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য। তার আমলে রাষ্ট্রীয় এবং ব্যক্তি পর্যায়ে সন্ত্রাস, দুর্নীতি, টাকা পাচার প্রাতিষ্ঠানিক রূপ লাভ করেছে। তার পতনের পর ফাঁসি ছিলো অবধারিত। তার স্বাভাবিক মৃত্যু আমাদের জন্য লজ্জাজনক। এর জন্য দায়ী বিএনপি আওয়ামী লীগ উভয় দল। ক্ষমতা হারানোর ভয়ে এবং ক্ষমতায় যাবার জন্য দুই দলই তাকে ব্যবহার করেছে, রাজনীতিতে পুনর্বাসন করেছে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]