• প্রচ্ছদ » সাবলিড » মিন্নি ৫ দিনের রিমান্ডে, নিজেকে নির্দোষ বললেন আদালতে, তার আইনজীবী ছিলো না


মিন্নি ৫ দিনের রিমান্ডে, নিজেকে নির্দোষ বললেন আদালতে, তার আইনজীবী ছিলো না

আমাদের নতুন সময় : 18/07/2019

সাহাবুদ্দিন পান্না ও ইফতেখার শাহীন :  গতকাল রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী ও তার  স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হুমাযুন কবীর মিন্নির ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বরগুনা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।

এ বিষয়ে বরগুনার পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) সঞ্জিব দাস জানান, মিন্নির পক্ষে কোনো আইনজীবী আদালতে উপস্থিত ছিলেন না। তার পক্ষে কোনো ধরনের ডকুমেন্টও আদালতে পেশ করা হয়নি।

তদন্তকারী কর্মকর্তার বক্তব্য শেষে মিন্নি আদালতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে স্বামী হত্যার চান। মিন্নি জানান, বিভিন্ন সময় আসামিরা তাকে ফোনে বিরক্ত করতো ও ভয়ভীতি দেখাতো। এমনকি প্রাণনাশের হুমকিও দিতো। আমাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলায় জড়ানো হয়েছে। বক্তব্যের একপর্যায়ে বিচারক হত্যাকারীর কল লিস্টে তার নম্বর কিভাবে এলো জানতে চাইলে মিন্নি নিরব থাকেন।

আদালতের বারান্দার উপস্থিত মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হক কিশোর সাংবাদিকদের জানান, তার মেয়ে আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি খুবই অসুস্থ। তাকে রিমান্ডে নেয়া  হলে আরো অসুস্থ হয়ে পড়বে।

এর আগে মঙ্গলবার সকালে শহরের  দক্ষিণ মাইঠা এলাকায় তার বাবার থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে পুলিশ লাইনে আনা হয়। সকাল পৌনে ১০টার সময় মিন্নিকে আনার জন্য নারী পুলিশের একটি দল মিন্নির বাবার বাড়িতে যান এবং তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরসহ মিন্নিকে পুলিশ লাইন নিয়ে আসেন । জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে আনা হয়েছে বলে পুলিশ  সুপার জানালেও  ওই দিন রাত ৯টায় তাকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ।

গত ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। হত্যাকা-ের পরের দিন রিফাত শরীফের বাবা আবদুল হালিম শরীফ বরগুনা থানায় ১২ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। এ ছাড়া সন্দেহভাজন অজ্ঞাতনামা আরও চার-পাঁচজনকে আসামি করা হয়। এ মামলার প্রধান আসামি সাব্বির আহম্মেদ ওরফে নয়ন বন্ড ২ জুলাই পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। মামলার এজাহারভুক্ত ছয় আসামিসহ গতকাল পর্যন্ত ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সম্পাদনা : মুরাদ হাসান।

 

 

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]