পেঁয়াজ আদা রসুনের দাম কমেছে, অপরিবর্তিত রয়েছে সবজিসহ ডিম ও কাঁচা মরিচের দাম

আমাদের নতুন সময় : 20/07/2019

রমজান আলী : রাজধানীর খুচরা বাজারগুলোতে সপ্তাহের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৫ টাকা কমেছে। এছাড়া কমেছে আদা ও রসুনের দামও। তবে অপরিবর্তত রয়েছে সব ধরনের সবজিসহ কাঁচা মরিচ ও ডিমের দাম।

ব্যবসায়ীদের দাবি বন্যা ও বৃষ্টির কারণে সব ধরনের সবজি ও কাঁচা মরিচের দাম বেড়েছে।  যে সব এলাকায় সবজি চাষ হয়ে থাকে সেসব এলাকা পানিতে তলে গেছে। ফলে সব ধরনের সবজির উৎপাদন কমে গেছে। তাই দাম একটু বেশি। শুক্রবার রাজধানীর কারওয়ানবাজার, শান্তিনগর, সেগুনবাগিচা, রামপুরা, মালিবাগ হাজীপাড়া, খিলগাঁও অঞ্চলের বিভিন্ন বাজার ঘুরে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

কারওয়ানবাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ভালো মানের দেশি পেঁয়াজের প্রতি কেজির দাম পড়ছে ৩২ থেকে ৩৪ টাকা। গত সপ্তাহে বাজারটিতে পেঁয়াজ প্রতি কেজির দাম ছিলো ৩৬ থেকে ৩৮ টাকা। পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৪ টাকা কমেছে।

খুচরা বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, যেসব বাজারে গত সপ্তাহে দেশি পেঁয়াজের কেজি ৪৫ টাকা বিক্রি হচ্ছিলো, তা এখন কমে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর কিছুটা নিম্নমানের দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিলো ৪০ টাকা কেজি। তবে কিছু কিছু বাজারে ভালো মানের দেশি পেঁয়াজ কেজি ৪৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে, যা গত সপ্তাহে ৫০ টাকা কেজি ছিলো। সব বাজারে দেশি পেঁয়াজের দাম সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ৫ টাকা কমেছে।

মুগদা বাজারে ব্যবসায়ী মোতালেব বলেন, গত সপ্তাহের চেয়ে পেঁয়াজে ৫ টাকা কমেছে। এছাড়া রসুন ও আদার দাম কমেছে কেজিতে ১০ টাকা কমেছে।

কারওয়ান বাজারের আফছার আলী বলেন, ডিমের ডজন ১১০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। ডিমের উৎপাদন কমে যাওয়াতে ডিমের দাম একটু বাড়তি রয়েছে। খুচরা বাজাওে ডিমের হালি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা।

এদিকে সবজির বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গত কয়েক সপ্তাহের মতো সব থেকে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে টমেটো, শসা ও গাজর। বাজার ভেদে পাকা টমেটো বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৪০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিলো ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি। সপ্তাহের ব্যবধানে টমেটোর দাম কেজিতে বেড়েছে ৪০ টাকা। গাজর বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিলো ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি। সপ্তাহের ব্যবধানে গাজরের দাম কেজিতে ২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। তবে শসা আগের সপ্তাহের মতো ৬০ থেকে ৮০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। শসা, টমেটো ও গাজরের মতো চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে বেশিরভাগ সবজি। গত সপ্তাহে ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া করলার দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। ঝিঙ্গা, ঢেঁড়স, উসি ও ধুন্দুলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিলো ৪০ থেকে ৫০ টাকা। কাকরোল গত সপ্তাহের মতো ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। পটল বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিলো ২০ থেকে ৩০ টাকা। দাম বাড়ার এ তালিকায় রয়েছে বেগুনও। গত সপ্তাহে ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া বেগুনের দাম বেড়ে হয়েছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। বেশিরভাগ সবজির পাশাপাশি দাম বেড়েছে কাঁচা মরিচের। কাঁচা মরিচ ২৫০ গ্রাম বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৩০ থেকে ৩৫ টাকা। সপ্তাহের ব্যবধানে কাঁচা মরিচের দাম পোয়ায় বেড়েছে ১০ টাকার বেশি।

সবজি ও কাঁচামরিচের দামের বিষয়ে খিলগাঁওয়ের ব্যবসায়ী আল আমিন বলেন, এখন টমেটো, শসা ও গাজরের মৌসুম না, তাই এগুলোর দাম বেশ চড়া। আর অন্য সবজি ও কাঁচামরিচের দাম বেড়েছে বৃষ্টির কারণে।

এদিকে মাংসের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ব্রয়লার মুরগি আগের সপ্তাহের মতো ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। পাকিস্তানি কক মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২২০ থেকে ২৩০ টাকা কেজি। একই দামে বিক্রি হচ্ছে লাল লেয়ার মুরগি। গরুর মাংস বাজার ভেদে বিক্রি হচ্ছে ৫৫০ থেকে ৫৭০ টাকা এবং খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭৫০ থেকে ৮৫০ টাকা কেজি। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]