ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশের পাশে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা

আমাদের নতুন সময় : 21/07/2019

সুজিৎ নন্দী : ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন বলেছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে আমরা সুনির্দিষ্ট কিছু পয়েন্ট দিয়েছি। যেমন আমাদের ওষুধগুলো কার্যকর কি না, ওষুধে কোনো পরিবর্তন দরকার কি না, নতুন ওষুধ প্রয়োজন হবে কি না, এসব বিষয়ে তারা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আমাদের অতি দ্রুততম সময়ে জানাবেন। তিনি বলেন, বিগত কয়েক বছরের তুলনায় এবার ডেঙ্গুর প্রকোপ অনেক বেশি। তবুও আমাদের আশপাশের অনেক দেশের তুলনায় আমরা ভালো অবস্থানে আছি। পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্র¿ণে আছে ; আর এটিকে নিয়ন্ত্র¿ণে রাখতে হলে জনসচেতনতার কোনো বিকল্প নেই। আমরা সচেতন না হলে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা সম্ভব নয়।

গতকাল শনিবার ডিএসসিসি মেয়র সাঈদ খোকন বনানীর বাসভবনে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। তিনি আরও জানিয়েছেন, ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করবে বিশ্ব  স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।এরই অংশ হিসেবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকনের সঙ্গে বৈঠক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি প্রতিনিধি দল।

প্রতিনিধিদলের প্রধান ভারপ্রাপ্ত রিপ্রেজেন্টটেটিভ ড. এ এ এডউইন স্যালভেডর জানিয়েছেন, মশা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্র¿ণে আমরা সিটি করকর্পোরেশন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং অন্যান্য সরকারি সংস্থাগুলোর সঙ্গে কাজ করতে চাই। এরই অংশ হিসেবে মেয়রের সঙ্গে বৈঠক করেছি। দুই পক্ষের তথ্য এবং অভিজ্ঞতা বিনিময় করেছি। কীভাবে আমরা একসঙ্গে কাজ করে সমস্যার সমাধান করতে পারি তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। যে জায়গাগুলোতে সমস্যা আছে, সেগুলোর সমাধান বের করতেই কাজ করব আমরা। আশপাশের দেশগুলোর সঙ্গে তুলনা করলে এবং বাংলাদেশে ডেঙ্গুর আগের বছরের চিত্র দেখলে দেখা যায়, আক্রান্ত রোগীর সংখ্যার দিক থেকে সার্বিক পরিস্থিতি বেশ জটিল। তবে মহামারি বা আতঙ্কিত হওয়ার মত কিছু এখনও হয়নি।  সম্পাদনা : বিশ্বজিৎ দত্ত,ইসমাইল হোসেন ইমু, সমর চক্রবর্তী

 

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]