ফুটওভার ব্রীজ ব্যবহারে পথচারিদের অনীহা

আমাদের নতুন সময় : 21/07/2019

মাসুদ আলম : রাজধানীর সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ নতুন নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করলেও শৃঙ্খলা ফিরছে না। শৃঙ্খলা ফেরাতে ভ্রাম্যমান আদালতও পরিচালনা করা হচ্ছে। পাশাপাশি সচেতনতার জন্য পথচারি, চালক ও হেলপারদের এক ঘন্টার কাউন্সিলিংও করা হয়। তারপরও ফুটওভারব্রীজ ও জেব্রা ক্রসিং ব্যবহারে পথচারিদের অনীহা। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পথচারিরা যত্রতত্র রাস্তা পারাপার ও রেলিংয়ে ফাঁকা অংশ দিয়ে পারাপার হচ্ছেন। আবার কেউ রেলিংয়ের ওপর দিয়ে লাফিয়ে পারাপার হচ্ছেন। এর ফলে ঘটছে দুর্ঘটনা। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সবাই সচেতন হলেই সড়কে শৃঙ্খলা ফিরবে। কারো একার পক্ষে তা সম্ভব নয়।

শনিবার সরেজমিনে দেখা গেছে, বসুন্ধরা শপিং মলের সামনের রাস্তাটি রেলিং দিয়ে আটকানো। রেলিংয়ের মাঝখানের ফাঁকা অংশ দিয়েই রাস্তা পার হচ্ছেন মার্কেটে আসা ক্রেতারা। অথচ মার্কেটির পাশে ফুটওভারব্রীজ থাকলেও পথচারিদের ব্যবহারে অনীহা রয়েছে। একই অবস্থা গুলশানের  বাঁশতলা এলাকার। ফুটওভারব্রীজে না উঠে যত্রতত্র ও রেলিংয়ের ওপর দিয়ে লাফিয়ে রাস্তা পার হচ্ছেন অনেকেই। ফুটওভারব্রীজটির পাশেই ক্যামব্রিয়ান স্কুল ও একটি বেসরকারি বিশ^বিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরাও ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার হচ্ছেন। একই চিত্র নতুনবাজার, বাড্ডা, উত্তরা ও মিরপুরসহ অধিকাংশ এলাকার। পুলিশ তৎপর থাকলে পথচারিদের ট্রাফিক আইন মানার প্রবণতা বাড়ে।

সেলিম মিয়া নামে এক পথচারি বলেন, দ্রুত পারাপারের জন্যই রেলিংয়ের ওপর দিয়ে লাফিয়ে পার হচ্ছিলাম। এরকম ভুল আর ভবিষৎতে হবে না।

বিশ^বিদ্যালয় শিক্ষার্থী  মলি বেগম বলেন, দ্রুত পারাপারের জন্য রেলিংয়ের ফাঁকা অংশ দিয়ে পার হচ্ছিলাম। যদি রেলিংগুলোর ফাঁকা অংশ বন্ধ করা হয়, বাধ্য হয়ে সবাই ফুটওভারব্রীজে উঠবে। যত্রতত্র পারাপার বন্ধ হয়ে যাবে। দুর্ঘটনা কমে আসবে।

ট্রাফিক পুলিশে ধানম-ি জোনের সিনিয়র সহকারি কমিশনার আকরাম হোসেন বলেন, আগের তুলনায় ফুটওভারব্রীজ ও জ্রেবা ক্রসিং ব্যবহার বেড়েছে। পথচারিদের মধ্যে সচেতনা সৃষ্টি হয়েছে। পুলিশ তৎপর রয়েছে।  রেলিংয়ের ফাঁকা অংশ বন্ধ হলে ফুটওভারব্রীজে উঠতে বাঁধ্য হবে পথচারিরা।  সম্পাদনা : ইসমাঈল ইমু, আবদুল অদুদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]