• প্রচ্ছদ » » প্রিয়া সাহা, বর্ণবাদী এক প্রেসিডেন্টের কাছে নালিশ দিয়ে ঠিক করেননি সত্যি, কিন্তু তার অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা!


প্রিয়া সাহা, বর্ণবাদী এক প্রেসিডেন্টের কাছে নালিশ দিয়ে ঠিক করেননি সত্যি, কিন্তু তার অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা!

আমাদের নতুন সময় : 23/07/2019

অজন্তা দেব রায়

প্রিয়া সাহার বক্তব্য পুরোপুরি মিথ্যা, বাংলাদেশে কোনোদিন ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন ঘটেনি। বাংলাদেশের কোনো ওয়াজমাহফিলে বিধর্মীদের গালাগালি করা হয় না। মূর্তিপূজা নিয়ে কটুক্তি, গালাগালি, হাস্য-রসিকতা করা হয় না। নব্বই ভাগ মুসলমানের দেশে থাকতে হলে এই করতে হবে, সেই করতে হবে, এই করা যাবে না, সেই করা যাবে না বলে হুমকি দেয়া হয় না। কোরবানিতে কোনো মন্দিরের সামনে পশু কোরবানি দেয়ার ঘটনা কোনোদিনও ঘটেনি, ইচ্ছে করে কোরবানির বর্জ্য ফেলে রাখা হয়নি। কোনো হিন্দুকে ‘..উন’ বলে গালি দেয়া হয় না। বলা হয় না‘ তোমাদের দেশ ভারত, ভারতে চলে যাও’ রমজান মাসে কোনো হিন্দু রেস্টুরেন্টে হামলার ঘটনা কোনোদিন ঘটেনি, গত রমজানে লাশ শবদাহ করতে বাধা দেয়ার ঘটনা মিথ্যে ছিলো। কোনো হিন্দুকে জোর করে ধর্মান্তরিত করার ঘটনা কোনোদিনও ঘটেনি, কাউকে ইচ্ছে করে লুকিয়ে গরুর মাংস খাইয়ে দেয়া হয় না। সংখ্যালঘু কারো নামে ভুয়া আইডি বানিয়ে গুজব ছড়িয়ে ঘরবাড়িতে হামলার ঘটনা কখনো ঘটেনি, বিনা অপরাধে কাউকে জেল খাটানো হয়নি। রামু-নাসিরনগর-সাঁওতালদের উপর হামলা ঘটেনি।
বাংলাদেশে কোনো উগ্র ধর্মীয় মৌলবাদী নেই। হিপোক্রেট সুশীল নেই। সুবিধাবাদী জমিলোভী, ভোটলোভী রাজনীতিবিদ নেই। নির্বাচনের আগে-পরে কখনো কোনো সা¤প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনা ঘটে না। এ রাষ্ট্রের কোনো নির্দিষ্ট ধর্ম নেই- এই রাষ্ট্র সব ধর্মের মানুষের জন্য সমান। অর্পিত সম্পত্তি আইন বলে কোনোকিছু এই দেশে নেই। ১৯৪৭ থেকে আজ পর্যন্ত একজন ও ধর্মীয় সংখ্যালঘু জমি দখল, লুটপাট, হত্যা, ধর্ষণ, হুমকির শিকার হয়ে দেশত্যাগ করেনি। এই দেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের সংখ্যা ১৯৪৭, ১৯৭১ এ যা ছিলো এখনও তাই আছে। প্রিয়া সাহা গুছিয়ে কথা বলতে পারেননি সত্যি, এভাবে ভিনদেশি বর্ণবাদী এক প্রেসিডেন্টের কাছে নালিশ দিয়েও ঠিক করেননি সত্যি কিন্তু তার অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা। আমি তার বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাচ্ছি। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]