বানবাসী মানুষের হাহাকারে ভারী হয়ে উঠছে যমুনা তীর

আমাদের নতুন সময় : 27/07/2019

ইউসুফ বাচ্চু : যমুনার তীরবর্তী এলাকা জামালপুরের ইসলামপুরে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষ বন্যা কবলিত। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, ত্রাণসামগ্রী প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। অনেকে গবাদি পশুসহ আশ্রয় নিয়েছেন মহাসড়কের পাশে। দুবেলা খবারের জন্য অন্যের আশায় থাকতে হয়।

সরজমিনে দেখা গেছে, জামালপুর জেলার ইসলামপুর উপজেলার গুঠাইল বাজার যমুনার তীরেই। সেখানে দিনভর মানুষ অপেক্ষা করছে একটু খাবারের আশায়। এর মধ্যে নারী শিশু বৃদ্ধের সংখ্যা বেশি। জামালপুর ২ আসনের এমপি ফরিদুল হক খান দুলাল, তার নির্বাচনী এলাকা ইসলামপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের মাঝে ত্রাণ তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি আবারও অবনতি হয়েছে। দ্বিতীয় দফা বন্যায় আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। গাইবান্ধায় উজান থেকে নেমে আসা ঢল ও গত ২ দিনের বৃষ্টিতে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বেড়েছে। বিপৎসীমার ৫৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। বন্যায় ১৪ হাজার হেক্টর জমির আউশ ও আমন ধানের বীজতলা, পাট ও সবজিসহ নষ্ট হয়ছে বিভিন্ন ফসল।

বগুড়ায় সারিয়াকান্দি পয়েন্টে টানা ৩ দিন যমুনা নদীর পানি কমার পর, আবারও বাড়তে শুরু করেছে। এছাড়া বাঙালি নদীর পানিও বিপৎসীমার ওপরে বইছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে সারিয়াকান্দি, ধুনট ও সোনাতলা উপজেলার দুই লাখের বেশি মানুষ।

ময়মনসিংহ সদরে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয়েছে ১০টি গ্রাম। তলিয়ে গেছে ফসলি জমি, বীজতলা ও মাছের খামার।

বন্যায় ঘর হারানো জরিনা বেগম জানান, ঘর গরু ছাগল সব বন্যার পানিতে ভেসে গেছে। নিজে কোন মতে বেঁচে গেছি। পরনে কাপড় ছাড়া আর কিছু নেই। কি খাবো জানিনা, খোলা আকাশের নিচে বেড়িবাঁধে থাকছি।

শিশুকন্যা নিয়ে বসে আছে জয়তুরন বেগম, স্বামী গেছে খাবারের সন্ধানে। ফিরলে তবে খাবার জুটবে কি জুটবে না তখন জানা যাবে। এদিকে ক্ষুধায় অনবরত কাঁদছে তার তিন বছরের শিশু। মা বার বার তাকে বোঝাতে চেষ্টা করছে তার বাবা খাবার আনতে গেছে। তার পরেও শিশুটির কান্না থামছে না।

জেলা ত্রাণ অফিস সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সংসদ সদস্য, জেলা-উপজেলা, বিভিন্ন রাজনৈতিক সামজিক সংগঠন এবং প্রশাসনের উদ্যোগ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা তহবিল থেকে যে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়েছে, তা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের তুলনায় খুবই নগণ্য। এছাড়া বেশির ভাগ টিউবওয়েল বন্যার পানিতে নিমজ্জিত। বন্যার পানি যতো কমবে ততোই খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির অভাব দেখা দেবে। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]