কাশ্মীর নিয়ে গোয়েন্দা প্রধানদের সঙ্গে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সাক্ষাৎ, রাজ্যজুড়ে তীব্র আতঙ্ক

আমাদের নতুন সময় : 05/08/2019

আসিফুজ্জামান পৃথিল : কাশ্মীরে হঠাৎ উত্তেজনা নিয়ে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা ও গুপ্তচর সংস্থার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। অন্যদিকে কাশ্মীরের উদ্ভূত পরিস্থিতিতে করণীয় ঠিক করতে একটি সর্বদলীয় সভা ডেকেছেন রাজ্যটির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি।

গত দশদিনে কাশ্মীরে অতিরিক্ত ৩৫ হাজার সেনা মোতায়েন এবং তীর্থযাত্রী ও পর্যটকদের রাজ্য ত্যাগের নির্দেশের পর কাশ্মীরে তীব্র আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। এনডিটিভি, ইয়ন, আনন্দবাজার।

গতকালের বৈঠকে অজিত দোভাল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, গোয়েন্দা প্রধান অরবিন্দ কুমার, ‘র’-এর সামন্ত গোয়েল, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব রাজীব গউবা সহ অনেকেই। গোয়েন্দা সংস্থাগুলি জানিয়েছে, গত ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় হওয়া জঙ্গি হামলার মতোই খুব বড় কোনো জঙ্গি হামলার ছক কষেছে। বৈঠকের বিষয়বস্তু সম্পর্কে সরকারিভাবে এখনও কিছু জানানো হয়নি।  গত সপ্তাহ থেকেই গোটা কাশ্মীর উপত্যকায় নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ধাপে ধাপে মোট ৩৫ হাজার অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

শুক্রবারই পর্যটক ও অমরনাথ যাত্রীদের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কাশ্মীর ছাড়ার নির্দেশিকা জারি করেন জম্মু-কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিক। রাজ্যের প্রায় সর্বত্র চলছে কড়া তল্লাশি ও টহল। এই পরিস্থিতিতে নানা গুঞ্জন ছড়িয়েছে গোটা উপত্যকায়। সংবিধানের ৩৫এ বা ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়া থেকে শুরু করে জম্মু এবং কাশ্মীরকে আলাদা রাজ্য ঘোষণা, ১৫ আগস্ট প্রধানমন্ত্রীর পতাকা উত্তোলনের মতো জল্পনা ঘিরে চাপা উত্তেজনা। কাশ্মীরের স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ৩৫এ ধারা তুলে নেওয়া হচ্ছে না বলে গভর্নরের বিবৃতির পরও সেই উৎকণ্ঠা কমেনি।

আর কাশ্মীরের বিদ্যমান উত্তেজনায় করনীয় ঠিক করতে রাজ্যটির সব রাজনৈতিক দলকে নিয়ে একটি বৈঠক ডেকেছেন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। গত দুই সপ্তাহে কাশ্মীরে কোনো ৩৫ হাজার অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন হলো সেই প্রশ্নের জবাব কেন্দ্র সরকারের কাছে চাইবেন তারা। তবে মেহবুবা মুফতি দাবি করেছেন, পুলিশ তাদের স্থানীয় হোটেলে বৈঠক করতে দেয়নি। মুফতি অভিযোগ করছেন বিনা কারনে সরকার কাশ্মীরে ভয়ের পরিবেশ তৈরী করেছে। এর পেছনে কোনো উদ্দেশ্য রয়েছে কিনা তাও জানতে চান তিনি।  সম্পাদনা: লিহান লিমা, ইকবাল

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]