ডেঙ্গু প্রতিরোধে কথা বলে রনবীর কার্টুন

আমাদের নতুন সময় : 06/08/2019

রাশিদ রিয়াজ : দেশের খ্যাতনামা চিত্রশিল্পী ও কার্টুনিস্ট রফিকুন নবী (উপনাম রনবী) মশা নিয়ে এ কার্টুনটি আঁকেন ১৯৮৮ সালে। এধরনের অনেক অনবদ্য কার্টুন সামাজিক ও রাজনৈতিক সমস্যা নিয়ে তির্যক দৃষ্টিভঙ্গী প্রকাশ করেছে। ডেঙ্গু সমস্যা সমাধানে যখন প্রতিরোধ ও মোকাবেলা চলছে সারাদেশে তখন এ কার্টুনটি প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ কার্টুনটির সাথে অনেকে কার্টুনিস্ট রফিকুন নবীকে স্মরণ করেছেন তাদের সময়ের স্মৃতিচারণ ও নষ্টালজিয়ার মধ্যে দিয়ে।

১৯৭৮ সাল থেকে থেকে টোকাই কার্টুন স্ট্রিপ হিসেবে সাপ্তাহিক বিচিত্রা পত্রিকায় প্রকাশিত হতে শুরু করে। তা আজো অব্যাহত রয়েছে ভিন্ন আঙ্গিকে আরো অসাধারণ রসবোধে। প্রাসঙ্গিক বিবেচনা করেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক পাঠক তার এ কার্টুন নিয়ে মন্তব্য করেছেন, এখন হলে ক্যাপশন হত, ‘চিন্তা করিস না দোস্ত, ওসব ওষুধে আমরা মরছি না।’ শুধু কার্টুন নয়, তার আঁকা ছবি যে সময়ের সঙ্গে তড়তড় করে ভবিষ্যতেও কথা বলে ওঠে এর একটি উদাহরণ হচ্ছে, ২০০৮ সালে তার আঁকা খরা শীর্ষক ছবির জন্য ৮০টি দেশের ৩০০ জন চিত্রশিল্পীর মধ্যে ‘এক্সিলেন্ট আর্টিস্টস অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ হিসেবে মনোনীত হন তিনি। শৈশবে এ প্রতিবেদকের দেখা রনবীর একটি কার্টুনের কথা বলার লোভ সংবরণ করতে পারছেন না। ঢাকায় একবার ব্রিটেনের এমসিসি ক্রিকেট ক্লাব খেলতে এলে বিসিবি একাদশের ব্যাটসম্যান ইউসুফ বাবু দিন শেষে ৭৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। পরদিন রনবীর কার্টুন রসিকতা করে বলে ওঠে, ‘অত জোরে মারিস না, রেশনের চাল খাওয়া কব্জি ভাইঙ্গা যাইতে পারে’। গুণীজন রনবী আপনাকে হাজারো কুর্ণিশ।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]