• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » পুলিশের হাতে গণধর্ষণ প্রমাণিত হলে অপরাধীদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে, বললেন নুরুল আনোয়ার 


পুলিশের হাতে গণধর্ষণ প্রমাণিত হলে অপরাধীদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে, বললেন নুরুল আনোয়ার 

আমাদের নতুন সময় : 07/08/2019

জুয়েল খান : রক্ষক যখন ভক্ষক হয় তখন এর থেকে দুঃখজন আর কিছু হতে পারে না। খুলনায় জিআরপি থানার ওসিসহ অন্য পুলিশ সদস্য মিলে থানার ভেতরে এক নারীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। আবার সেই ঘটনায় পুলিশ ওই নারীকে ৫ বোতল ফেনসিডিল দিয়ে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আটক করেছে। এখন আমার প্রশ্ন হচ্ছে, ৫ বোতল ফেনসিডিল দিয়ে যে মামলায় আটক দেখিয়েছে সেটা কি খুবই গুরুতর কোনো অভিযোগ? যেখানে মানুষ হাজার হাজার পিস ইয়াবা নিয়ে ধরা পড়ছে সেখানে ৫ বোতল ফেনসিডিল থেকে কতো টাকা আয় হবে যে কোনো নারী এটা বহন করবে? তবে এই ঘটনা যদি সত্যি প্রমাণিত হয় তাহলে অবশ্যই শাস্তিযোগ্য এবং ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ। ঘটনা সত্যি হলে আইনের সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান অনুযায়ী এই অপরাধের শাস্তি দিতে হবে বলে মনে করেন পুলিশের সাবেক আইজিপি নুরুল আনোয়ার।

তিনি বলেন, প্রচলিত আইনের শাস্তি দিতে হবে তবে, যেসব ক্ষেত্রে বিভগীয় তদন্তের ব্যবস্থা থাকে সেখানেও অপরাধ প্রমাণিত হলে শাস্তি হয় কারণ কোনো কর্মকর্তা অপরাধীকে বাঁচাতে গেলে তিনি নিজেই বিপদে পড়ে সুতরাং অন্যায় করে পার পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু অপরাধ কতোটুকু সে বিষয়টা মেডিকেল চেকআপ না হওয়া পর্যন্ত বলা যাচ্ছে না। তবে যে কর্মকর্তা এই ধরনের অপরাধ করছে সে তার পুরো পরিবারের জন্য অনেক বড় ক্ষতি ডেকে আনছে। এজন্য প্রত্যেক ব্যক্তিকে নৈতিকভাবে শুদ্ধ হতে হবে। এখানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একটা বড় ভূমিকা আছে কারণ যে পুলিশ কর্মকর্তা এই ধরনের ঘটনা ঘটাচ্ছে সে কোনো না কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা নিয়েছে, সেই প্রতিষ্ঠান থেকে যদি নৈতিক শিক্ষা গ্রহণ করতো তাহলে এই ধরনের অপরাধ করতে পারতো না। কিন্তু এখন অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকও ধর্ষণের মতো অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে তাহলে তারা শিক্ষার্থীদের কি শিক্ষা দেবে।

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]