ডেঙ্গু প্রতিরোধে লোক দেখানো কর্মসূচি নয়, বললেন কাদের

আমাদের নতুন সময় : 08/08/2019

সমীরণ রায় : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অনুরোধ করব, দায়সারা গোছের ওষুধ ছিটানোর প্রয়োজন নেই। যেই ওষুধে সত্যিকার অর্থে মশক নিধন হবে, মানুষ চায় সেই ওষুধ।

বুধবার মিরপুর মাজার রোডে ডেঙ্গু মোকাবেলায় জনগণকে সচেতন করতে পরিষ্কার রাখি চারপাশের পরিবেশ, ‘শেখ হাসিনার নির্দেশ ডেঙ্গুমুক্ত বাংলাদেশ’ শীর্ষক কর্মসূচিতে তিনি আরও বলেন, আমাদের নেত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী যতোদিন এই ডেঙ্গু জ্বর আর এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারব, ততোদিন এই পরিচ্ছন্নতা অভিযান ও সচেতনতামূলক কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

কাদের বলেন, নগরবাসীকে ঘর, আঙিনা, কর্মস্থল, স্কুল, কলেজ ক্যাম্পাস এবং বিপণি বিতান পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। এটাই শেখ হাসিনার নির্দেশ। এই প্রোগ্রাম হচ্ছে; অ্যাকশন প্রোগ্রাম। এই অ্যাকশন শেখ হাসিনার, ডেঙ্গু  ও এডিস বিরোধী অ্যাকশন।

মশারি টাঙানোর বিকল্প নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আওয়ামী লীগ সফল হবে। সমন্বিত উদ্যোগে এই প্রাণঘাতি মশক নিধনে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আমরা সফল হবো। আগস্ট মাস শোকের মাস। এ মাসে আমরা এডিস নির্মূলে কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। এডিস মশার আতঙ্ক থেকে জনগণকে মুক্তি দিয়ে শান্তি দিতে পারলে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আত্মাও শান্তি পাবে।

কাশ্মীর প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা রদে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল ও রাজ্যটি বিভাজন ঘিরে সৃষ্ট চলমান সংকট বাংলাদেশ সরকার গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। ভারতের পার্লামেন্ট রাজ্যসভা এবং লোকসভায় বিলটি পাস হয়েছে। ভারতের এ অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করার, কোনো প্রশ্ন করার এখতিয়ার আমাদের নেই। আমরা বিষয়টি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। এটা প্রতিবেশী দেশের ইন্টারনাল বিষয়। আর প্রতিবেশী দেশের ইন্টারনাল বিষয় নিয়ে আমরা কোনো মন্তব্য করতে চাই না।

কর্মসূচিতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম, ঢাকা ১৪ আসনের সংসদ সদস্য আসলামুল হক, জামালপুর ৩ আসনের সংসদ সদস্য মির্জা আজম, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম রহমত উল্লাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। র‌্যালি আগে ওবায়দুল কাদের গরিব-দুস্থদের মাঝে মশারি বিতরণ করেন। সম্পাদনা ; রেজাউল আহসান

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]