• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » বিশে^র ১২৮ দেশের মানুষকে ভোগান্তিতে রেখেছে ডেঙ্গু, জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী


বিশে^র ১২৮ দেশের মানুষকে ভোগান্তিতে রেখেছে ডেঙ্গু, জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 09/08/2019

তাসকিনা ইয়াসমিন : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি বলেছেন, ডেঙ্গু রোগ বর্তমানে বিশে^র ১২৮টি দেশের মানুষকে ভোগান্তিতে রেখেছে। বিশে^র ১২৮টি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত দেশের মধ্যে বাংলাদেশও একটি। এশিয়ার অন্য একটি দেশ ফিলিপাইনে ৬শ জনেরও বেশি মানুষ ডেঙ্গুতে মৃত্যুবরণ করায় দেশটির সরকার মহামারী ঘোষণা করেছে। আমেরিকা বা সিঙ্গাপুরের মত আধুনিক দেশও ডেঙ্গু থেকে রেহাই পায়নি।
গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানী বাড্ডায় যুগান্তর বোর্ড রুমে, দৈনিক যুগান্তর পত্রিকা কর্তৃক আয়োজিত ‘ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ ও সচেতনতায় করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল সভায় ডেঙ্গু রোগ সংক্রান্ত আলোচনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক, এমপি।
তিনি বলেন, অন্যদিকে, বৈশি^ক জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বাংলাদেশেও প্রায় প্রতিদিনই বৃষ্টিপাত হচ্ছে। বৃষ্টি হলে বাসা-বাড়ির আশেপাশে স্বচ্ছ পানি জমে থাকে। এই স্বচ্ছ জমাট পানি ২/৩ দিন আটকে থাকলেই সেখানে এডিশ মশা জন্ম নেয়ার সুযোগ পায়। বাসা-বাড়ির আশেপাশে বা ছাদে, ফলের টবে বৃষ্টির পানি জমে ৩দিন থাকা মানেই এডিশ মশার বংশ বৃদ্ধিতে সহায়তা করা, আর এডিশ মশা বৃদ্ধি মানেই ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যাও বৃদ্ধি পাওয়া। এ কারণে বাসা-বাড়িতে জমে থাকা স্বচ্ছ পানি প্রতি ৩ দিনে ১ বার পরিবর্তন করুন। পাশাপাশি প্রতিটি বাসা-বাড়িসহ স্কুল-কলেজে ব্যক্তি সচেতনতা এখন সবচেয়ে জরুরি কাজ।

ঢাকা-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা সিটি কর্পোরেশন উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, বিএসএমএমইউ-এর মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ, বিএসএমএমইউ-এর প্রাক্তন উপাচার্য অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম, কীটতত্ত্ববীদ ড. মঞ্জুর চৌধুরী, কীটনাশক বিশেষজ্ঞ এ কে আজাদ এবং আইসিডিডিআর,বি এর প্রাক্তন প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. মুশতাক হোসেন প্রমুখ। সম্পাদনা : সমর চক্রবর্তী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]