• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের বিরুদ্ধে দ্রুত শুনানির আর্জি খারিজ সুপ্রিম কোর্টে


৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের বিরুদ্ধে দ্রুত শুনানির আর্জি খারিজ সুপ্রিম কোর্টে

আমাদের নতুন সময় : 09/08/2019

ইমরুল শাহেদ : ভারতীয় সংবিধান থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্তির মাধ্যমে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে দ্রুত শুনানির জন্য করা একটি আবেদন খারিজ হয়ে গেছে। সোমবার প্রেসিডেন্ট আদেশের বিরুদ্ধে এই আবেদনটি করেছিলেন আইনজীবী এমএল শর্মা। আবেদনে তিনি দাবি করেন, শীর্ষ আদালত কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে ‘বেআইনি’ বলে ঘোষণা করুক। প্রেসিডেন্টের এই আদেশ অসাংবিধানিক। আবেদনে তিনি আরো বলেন, অনুচ্ছেদটি সংশোধনের জন্য পার্লামেন্টারি পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়নি। আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, সংবিধানের ওই অনুচ্ছেদের মধ্যেই রয়েছে যে, ক্ষমতা ব্যবহার করে অনুচ্ছেদটি বাতিল করা যাবে না। মঙ্গলবার আবেদনটির দ্রুত শুনানির জন্য এমএল শর্মা আবারও আদালতের শরণাপন্ন হন। বিচারপতি এনভি রমনার বেঞ্চ বলেছে, ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে দ্রুত শুনানির আর্জি মঞ্জুর করা সম্ভব নয়। নিউজ ১৮, এবিপি।
এম এল শর্মা দাবি করেন, আগামী ১২-১৩ অগস্টের মধ্যে জম্মু কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ খারিজ করার বিরুদ্ধে তার আবেদনের ভিত্তিতে শুনানি হোক। তার আবেদনে উল্লেখ ছিল, কাশ্মীরে নেতাদের বলপূর্বক গৃহবন্দি করে এই বিল পাশ করানো হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, বহু কাশ্মীরি এই বিলের বিরোধিতা করে জাতিসংঘে যেতে চান। তার এই আবেদন খারিজ করে এনভি রমনার বেঞ্চ এদিন বলেন, এই বিলের বিরোধিতা করে কেউ জাতিসংঘে যেতেই পারেন, কিন্তু জাতিসংঘ কি কোনও সাংবিধানিক অনুচ্ছেদের ওপর স্থগিতাদেশ আনতে পারে?
এই আইনজীবী নিজের আবেদনে লেখেন, কাশ্মীর বিধানসভায় ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের বিষয়টি আলোচনা করা হয়নি। মোদী সরকার অবশ্য এর পাল্টা যুক্তিটি আগেই পেশ করে রেখেছিল। তাদের যুক্তি, জম্মু কাশ্মীরে বিধানসভার অস্তিত্বই নেই, সেখানে রাষ্ট্রপতির শাসন চলছে। তাই রাষ্ট্রপতির ক্ষমতাবলেই এই নির্দেশ জারি করা হয়েছে। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল চেয়ে করা একটি আবেদন দিল্লি হাইকোর্ট খারিজ করে দিয়েছিল। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]