• প্রচ্ছদ » » ডেঙ্গু চিকিৎসায় হোমিওপ্যাথী কি কার্যকর?


ডেঙ্গু চিকিৎসায় হোমিওপ্যাথী কি কার্যকর?

আমাদের নতুন সময় : 10/08/2019

লী কুড়িগ্রাম

ডেঙ্গু নিয়ে ঢাকায় আর সবার মতোই কাশেম ভাইও খুব উদ্বিগ্ন থাকেন। সাহিত্যচর্চার পাশাপাশি তিনি একজন হোমিও চিকিৎসক। তিনি বলেন, ডেঙ্গু জ্বরের প্রতিরোধক ও প্রতিষেধক হোমিও চিকিৎসায় আছে। তাই সবাইকে স্বপ্রণোদিত হয়ে তিনি ওষুধ দেন, পরামর্শ দেন। কখনো বিনামূল্যে, তো কখনো নামমাত্র মূল্যে। তার কথায় লিডামপাল (৩০) সাপ, আরশোলা, মশাসহ বিভিন্ন কীটপতঙ্গ কামড়ালে তার বিষক্রিয়া হতে দেয় না শরীরে। প্রতিদিন তিনি সবাইকে ওষুধ পথ্য নেয়ার নিয়ম বাতলে দেন। আমাদের মধ্যে মাসুদ ভাইয়ের কয়দিন আগে জ্বর হয়েছিলো। ডেঙ্গু টেস্ট করার আগেই সেরেও গেছে। মাসুদ ভাইকে সেসময় কাশেম ভাই ওষুধ দিয়েছিলেন। জ্বর সারার পর কাশেম ভাই নিশ্চিত করে বলেছেন, এটা ডেঙ্গুজ্বরই ছিলো। তার কথায় কেউ কেউ খুব ভরসা করা শুরুও করেছে। তাদের বিশ্বাস কাশেম ভাইয়ের ওষুধ থাকলে আর ডেঙ্গু নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। আমাকেও তিনি ওষুধ দিয়েছেন। বাসার সবাইকে খাওয়াতে বলেছেন। আগাম খেলেও নাকি ডেঙ্গুজ্বর হবে না। আমি ওষুধ নিয়ে রেখেছি। এর মধ্যে সেদিন ডেঙ্গু মশা তাড়াতে এসির জমা পানির লাইনসহ স্টোর পরিষ্কার করা হচ্ছিলো। আমরা রুমে বসা। হঠাৎ একটা মশা আমার পায়ের পাতায় হুল ফুটিয়েছে। মাসুদ ভাই মশাটা আলতো করে মেরে সবাইকে দেখাচ্ছিলেন এডিস কিনা। কাশেম ভাই সবার আগে লাফিয়ে উঠে দাঁড়ালেন। ঘর থেকে বেরিয়ে ঘরে স্প্রে করার জন্য চাপাচাপি করতে লাগলেন। স্প্রে করার পরও তিনি যতোক্ষণ ঘরে থাকলেন পুরো সময় তাকে আতঙ্কগ্রস্ত লাগলো। তবুও কাশেম ভাই প্রতিদিন বাসা থেকে ডেঙ্গু প্রতিরোধক ও প্রতিষেধকের ওষুধ নিয়ে আসেন। শুধু আমাদের বসার ঘরে নয়, আশপাশেও তিনি ওষুধ খাওয়ান। অবশ্য প্রতিদিন বাসায় ফেরার সময় কাশেম ভাই সবার কাছে দোয়া চান যাতে তার ডেঙ্গুজ্বর না হয়। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]