নগরীর ঈদ উপহার ডেঙ্গু, বললেন ভুক্তভোগীরা

আমাদের নতুন সময় : 10/08/2019

তাপসী রাবেয়া: ঢাকা যখন ফাঁকা হয়ে ঈদ আনন্দে মাতোয়ারা ; অনেকেই তখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন । চলছে ডেঙ্গু রোগীর স্বজনদের হাহাকার। আক্রান্তদের ছোটখাট সমাবেশ মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগে।আতংকিত পরিবারের স্বজনরা বলছেন এই ঈদ কি আনন্দময় হবে সবার কাছে? যে শিশুরা মারা গেলো, যারা পিতা হারালো, যারা মা হারালো যাদের সন্তান হারালো তাদের কান্না কি কতৃপক্ষকে বেদনায় আক্রান্ত করবে?
গত বৃহস্পতিবার রাতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সোবহানবাগের বাসিন্দা হাইকোর্টের আইনজীবী মিজানুর রহমানের চার বছর বয়সী মেয়ে সারা। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত একবছরের ছোটমেয়ে সাবা। মোবাইল ফোনে সারা-সাবার আত্মীয় বলেন, অনুভূতি জানতে চাচ্ছেন? সেই অনুভূতি কি কর্তৃপক্ষকে সচেতন করবে?
মেয়রদ¦য়কে দায়িত্বহীন ও আমানবিক দাবি করে বলেন, তারা এখন কোরবানীর বর্জ্য আর রক্ত পরিস্কারের কথা বলবেন।রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারের শরিফ রহমান ও দিনা আহমেদের ৩ বছরের ছেলে যাঈনের ডেঙ্গু ধরা পড়েছে। প্লাটিলেট কমছে দ্রুত। দিনা আহমেদ বলেন, প্রথমবার পরীক্ষার পর নেগেটিভ আসলেও দ্বিতীয় দফায় ডেঙ্গু ধরা পড়েছে। তিনি বলেন, কোরবানীর জন্য ছেলেটা ডাকাডাকি করলেও এখন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে পড়ে আছে। মশারি, স্প্রে, কয়েল ব্যবহার করেও বাচ্চাকে রক্ষা করা যায় নি।
ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন এমন ১৪ পরিবারের সদস্যরা বলেন, আতংকের মধ্যে দিন পার করছি। কখন কার মৃত্যু সংবাদ শুনতে হয়। মেডিসিন বিভাগের ৬০১ ও ৬০২ নম্বর ওয়ার্ডে বেডে জায়গা পাননি কিংবা সদ্যই পেয়েছেন, এমন দশ জন রোগী ও তাঁদের স্বজনদের সঙ্গে কথা হয়। তাঁদের অনেকেই অভিযোগ করেন, মশা নিধনের দায়িত্বে থাকা সরকারের বিভিন্ন বিভাগের অবহেলার কারণেই এবার ডেঙ্গুরর এমন প্রকোপ। ৬০২ নম্বর ওয়ার্ডের সামনে সিঁড়ির পাশে মেঝেতে অবস্থান নিয়েছেন আনসারুল ইসলাম নামে ডেঙ্গু আক্রান্ত এক ব্যক্তি। তাঁর গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরা সদরে। এলাকায় কৃষিকাজ করতেন। রোজগার ভালো হচ্ছিল না বলে সম্প্রতি ভাগ্যোন্নয়নে সপরিবারে ঢাকায় এসেছেন তিনি। থাকছেন নয়াপল্টনের একটি ভাড়া বাসায়। ভাগ্যোন্নয়নের বদলে ঢাকা প্রথমেই তাঁকে ‘উপহার’ দিয়েছে ডেঙ্গু।আনসারুলের স্ত্রী জানালেন, পাঁচ দিন ধরে তাঁরা মেঝেতেই কাটাচ্ছেন। রোগীর চাপ বেশি হওয়ায় বেডে জায়গা পাচ্ছেন না তাঁর স্বামী। তবে ডাক্তারদের আন্তরিকতার প্রশংসা করলেন এই নারী।
মশা নিধনে সিটি করপোরেশনের প্রতি ক্ষোভও ঝাড়লেন তিনি। চার দিন মেঝেতে থাকার পর বুধবার বেডে জায়গা পেয়েছেন সুরঞ্জন ভৌমিক নামের এক শিক্ষার্থী। গত শনিবার রাজধানীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের এই শিক্ষার্থীর জ্বর হয়। সরকারি কর্মকর্তা বাবা তাঁকে বেসরকারি হাসপাতালে নেন। অবস্থার অবনতি হলে সেখান থেকে তাঁকে ঢাকা মেডিকেলে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। তার স্বজনদের অভিযোগ কারো কারো পাপে শাস্তি পাচ্ছে সমস্ত নগরবাসী। সম্পাদনা : সমর চক্রবর্তী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]